• বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৫ ১৪২৯

  • || ২৯ জ্বিলকদ ১৪৪৩

তাড়াশে উফশী কাটা শুরু, ফলনও ভালো

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৮ এপ্রিল ২০২২  

তাড়াশে উফশী জাতের বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে। সিরাজগঞ্জের তাড়াশে আগাম জাতের উফশী বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত ফলনও ভালো হয়েছে। কৃষকেরা নতুন ধান ঘরে তোলা নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। তাঁদের যেন অবসর নেওয়ার সুযোগ নেই।

উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, তাড়াশ উপজেলায় এ বছর চলতি মৌসুমে বোরো ধান চাষের লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা ছিল ২২ হাজার ৩১৫ হেক্টর জমিতে। কিন্তু লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪৫ হেক্টর জমিতে বেশি চাষ হয়েছে। সরকারি প্রণোদনা হিসেবে বীজ, সার দেওয়াতে কৃষকেরা প্রতিবছর বোরো আবাদে ঝুঁকছেন বলে জানায় উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর।

জানা গেছে, চলতি বোরো মৌসুমে উপজেলার ৮ ইউনিয়নে বিভিন্ন জাতের বোরো ধান আবাদ করা হয়েছে। এর মধ্যে মিনিকেট, ব্রি-২৮, ব্রি-৩৪ ও কাটারিভোগ ধান কাটা শুরু হয়েছে। এগুলোর ফলনও ভালো হচ্ছে। প্রতি বিঘায় ২২ মণ থেকে ২৫ মণ হারে ধান হচ্ছে।

তবে কৃষকেরা বলছেন, অনুকূল আবহাওয়া আর সঠিক মাত্রায় সার ও কীটনাশক প্রয়োগে বোরো ধানের ফলন ভালো হয়েছে।

উপজেলার তালম ইউনিয়নের গুল্টা গ্রামের কৃষক আব্দুল জলিল, মনির হোসেনসহ একাধিক কৃষকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ বছর উফশী জাতের বোরো ধানের ফলন ভালো হয়েছে। তবে বাজারে ধানের দাম ভালো থাকলে তবেই কৃষকেরা লাভবান হবেন।

উপজেলার ফসলি মাঠগুলোয় ধান কাটার জন্য পার্শ্ববর্তী জেলা পাবনা, যশোর, কুষ্টিয়া, রাজশাহীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে শ্রমিকেরা দলে দলে আসছেন।

দেশীগ্রাম ইউনিয়নের কর্ণঘোষ গ্রামের কৃষক ছবুর প্রামাণিক বলেন, এ বছর বোরো ধানের ফলন অনেক ভালো হয়েছে। বর্তমানে বাজারে ধানের দামও বেশ ভালো। এলাকার প্রতিটি হাট-বাজারে কাঁচা-ভেজা প্রতি মণ ধান ১ হাজার থেকে সাড়ে ১ হাজার ২০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যদি আবহাওয়া অনুকূলে থাকে তাহলে কৃষকেরা লাভবান হবেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ লুৎফুন্নাহার লুনা বলেন, তাড়াশ উপজেলাসহ চলনবিলে এবার বোরো ধান অনেক ভালো হয়েছে। তবে পুরোদমে ধান কাটতে এখনো ১৫ দিন সময় লাগবে। যেসব কৃষকেরা জমিতে সরিষা আবাদ করেননি, তাঁরা আগাম উফশী জাতের ধান আবাদ করেছেন। এই জাতের ধান এখন কাটা শুরু হয়েছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ