• শনিবার   ০২ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৮ ১৪২৯

  • || ০৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

হরমোনের তারতম্যে নানা সমস্যা

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২২  

থাইরয়েড গ্রন্থিটি গলার সামনের দিকের উঁচু হাড়ের নিচে অবস্থিত। গ্রন্থিটি দেখতে প্রজাপতির মতো এবং এটি ট্রাকিয়া বা শ্বাসনালিকে পেঁচিয়ে থাকে। ছোট গ্রন্থি হলেও এর কার্যকারিতা ব্যাপক। থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে নিঃসৃত হরমোন মানব পরিপাক প্রক্রিয়ায় অন্যতম ভূমিকা পালন করে।

এ হরমোনের তারতম্যের জন্য নানা রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে।

লক্ষণ

-    শারীরিক ও মানসিক বৃদ্ধি

-    শরীর মোটা হওয়া

-    মাসিকের বিভিন্ন সমস্যা

-    ত্বকের সমস্যা

-    হার্টের সমস্যা

-    চোখ ভয়ংকরভাবে বড় হওয়া

-    বন্ধ্যাত্ব

ওপরের উল্লিখিত সমস্যাগুলোর জন্য থাইরয়েড হরমোনের তারতম্যকে দায়ী করা হয়। শারীরিক কার্যক্ষমতা সঠিক রাখার জন্য নির্দিষ্ট মাত্রায় এই হরমোন শরীরে থাকা একান্ত জরুরি।

 করণীয়

মায়ের থাইরয়েড হরমোনের সমস্যা থাকলে এর প্রভাব নবজাতকের ওপর পড়ে। নবজাতকের থাইরয়েড হরমোনের অভাব শিশুর স্বাভাবিক শারীরিক ও মানসিক বৃদ্ধিতে ব্যাঘাত ঘটায়। যার ফলে শিশু প্রতিবন্ধী হতে পারে। প্রতিবন্ধী হওয়ার হাত থেকে রক্ষার জন্য প্রতিটি নবজাতকের জন্মের সঙ্গে সঙ্গে থাইরয়েড পরীক্ষা করা জরুরি।

হরমোন স্বাভাবিক থেকেও থাইরয়েড গ্রন্থি ফুলে যেতে পারে। সাধারণত আয়োডিনের অভাবে গলা ফোলা রোগ হয়ে থাকে, যাকে আমাদের সাধারণ ভাষায় ঘ্যাগ রোগ বলা হয়। আয়োডিন শরীরে অতি প্রয়োজনীয় থাইরয়েড হরমোন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই আয়োডিনযুক্ত লবণ খেতে হবে।

থাইরয়েড সমস্যা নির্ণয়ের জন্য রক্ত পরীক্ষা করতে হয়। সাধারণত ওষুধের মাধ্যমেই চিকিৎসা করা হয়। থাইরয়েডের চিকিৎসা দেশেই হয়ে থাকে, চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।


পরামর্শ দিয়েছেন

অধ্যাপক ডা. মো. ফরিদ উদ্দিন

প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান

এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় শাহবাগ, ঢাকা।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ