মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

যে সমীকরণে এখনো প্লে-অফের আশা আছে কোহলিদের

যে সমীকরণে এখনো প্লে-অফের আশা আছে কোহলিদের

সংগৃহীত

জয়ের হ্যাটট্রিকে আইপিএলের লড়াইয়ে ফিরেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। এখনও প্লে-অফে উঠতে পারে তারা। তবে সেক্ষেত্রে বাকি থাকা ম্যাচগুলো শুধু জিতলেই হবে না, সেই সঙ্গে আরও কিছু সমীকরণও মেলাতে হবে। 

এখন আরসিবির পয়েন্ট ১১ ম্যাচ খেলে ৮। পয়েন্ট তালিকায় সাত নম্বরে রয়েছে তারা। বেঙ্গালুরুর বাকি তিনটি ম্যাচ রয়েছে পাঞ্জাব কিংস, দিল্লি ক্যাপিটালস ও চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে। তার মধ্যে পাঞ্জাব ছাড়া বাকি দু’টি ম্যাচ ঘরের মাঠে খেলবেন কোহলিরা।

প্রথমত, বেঙ্গালুরুকে নিজেদের বাকি তিনটি ম্যাচ জিততে হবে। তাহলে তাদের পয়েন্ট হবে ১৪। এখন তাদের নেট রানরেট -০.০৪৯। তিনটি ম্যাচ জিতলে নেট রানরেট ভালো হবে। দ্বিতীয়ত, বেঙ্গালুরুকে আশা করতে হবে যাতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ বা লখনৌ সুপার জায়ান্টসের মধ্যে একটি দল তাদের বাকি ম্যাচের মধ্যে একটির বেশি না জেতে। দু’দলের পয়েন্ট ১০ ম্যাচে ১২। তাহলে তাদের মধ্যে একটি দলের পয়েন্ট ১৪-এর বেশি হবে না। তাদের নেট রানরেট বেঙ্গালুরুর থেকে কম হতে পারে।

বেঙ্গালুরুকে নজর রাখতে হবে আরও দু’টি দলের দিকে। তাদের আশা করতে হবে যাতে চেন্নাই সুপার কিংস ও দিল্লি ক্যাপিটালস বাকি ম্যাচের মধ্যে দু’টির বেশি না জেতে। দু দলেরই ১০ পয়েন্ট করে রয়েছে। অর্থাৎ, তাদের পয়েন্টও ১৪-এর বেশি হবে না। সে ক্ষেত্রেও তাদের নেট রানরেট বেঙ্গালুরুর থেকে কম হতে পারে।

পাঞ্জাব কিংস, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও গুজরাট টাইটান্সের পয়েন্ট ১১ ম্যাচে ৮। তারা যেন তাদের বাকি ম্যাচগুলোর মধ্যে অন্তত একটি করে হারে এমন প্রার্থনা করতে হবে বেঙ্গালুরুর। তাহলে তারাও ১২ পয়েন্টের বেশি যেতে পারবে না।

কোহলি-ডু প্লেসিদের প্লে-অফে উঠা যদি কিন্তুর ওপর থাকলেও অসম্ভব নয়। তবে সবার আগে তাদের নিজেদের তিনটি ম্যাচ জিততে হবে। সেখানে একটি হারলেই প্লে-অফে ওঠার স্বপ্ন প্রায় শেষ হয়ে যাবে কোহলিদের।

সূত্র: Dhaka post