• সোমবার   ০৩ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৮ ১৪২৯

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

মহাজোট ২৪৮, ঐক্যফ্রন্ট ৪৯

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮  

একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মহাজোট ২৪৮ আসন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ৪৯ আসন ও অন্যান্য দল পাবে তিনটি আসন। বেসরকারি গবেষণা সংস্থা ও উন্নয়ন কেন্দ্রের (আরডিসি) জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বুধবার রাজধানীর গুলশানের ওয়েস্টিন হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে জরিপের ফল প্রকাশ করা হয়। অনুষ্ঠানে জরিপের বিস্তারিত তুলে ধরেন আরডিসির গবেষক ও অর্থনীতিবিদ ফরেস্ট ই কুকসেন।

তিনি জানান, একাদশ নির্বাচন সামনে রেখে এ জরিপ চালানো হয়। জরিপে ২ হাজার ২৪৯ জন ভোটারের মতামত নেয়া হয়েছে। জরিপ অনুযায়ী মহাজোট ২৪৮টি আসন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ৪৯টি ও অন্যান্য দল তিনটি আসন পেতে পারে বলে পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে।

আরডিসির জরিপে উল্লেখ করা হয়, ভোটারদের ৬০ শতাংশ সমর্থন করেন মহাজোটকে। বিএনপি-জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সমর্থন করেন ২২ শতাংশ ভোটার, জেপি ৪ শতাংশ, ১০ শতাংশ ভোটার এখনো অনিশ্চিত, ৩ শতাংশ ভোটার উত্তর দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। আর ১ শতাংশ ভোটার ভোট দিতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

জরিপে বলা হয়, ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যেখানে মহাজোট ভোট পেয়েছিল ৫৭ শতাংশ। বিএনপি জোট পেয়েছিল ৩৭ শতাংশ ও অন্যরা পেয়েছিল ৬ শতাংশ ভোট। এবারের জরিপের ফল অনেকটা তারই ধারাবাহিকতা।

সংবাদ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিবিদ ও গবেষক ফরেস্ট ই কুকসেন জানান, রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ হয়ে নির্বাচনের সম্ভাব্য ফল জানাতে এ জরিপ পরিচালনা করা হয়। গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে নির্বাচনের আগে এ ধরনের জরিপের রেওয়াজ রয়েছে। নির্বাচনের আগে এমন ভোট গণনা ও তা কার্যকর করা কঠিন। তবে ভোটারদের ৯৮ শতাংশই এ নির্বাচনে অংশ নিতে চান বলেও জানিয়েছেন তারা।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে গবেষক কুকসেন বলেন, আমরা নিরপেক্ষভাবেই এ জরিপ পরিচালনা করেছি। জরিপের জন্য ভোটারদের কাছে ব্যালট পেপার দিয়েছি। সেই ব্যালটে তারা ভোট দিয়েছেন। ব্যালটে ভোট দিতে অস্বীকার করা ও বা ভোট দেয়ার ইচ্ছা নেই, এমন প্রশ্নও যুক্ত করা হয়েছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ