• শুক্রবার   ২৭ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩

রায়গঞ্জে অপহরণের ৬ দিন পর নাবালিকা নারী উদ্ধার করে পুলিশ

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৬ জানুয়ারি ২০২২  

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে আপহরণের ৬ দিন পর নাবালিকা নারীকে উদ্ধার করে পিতার হেফাজোতে দিয়েছে রায়গঞ্জ থানা পুলিশ। গত ০৩ জানুয়ারী সোমবার ধানগড়া এলাকা থেকে ঐ নারীকে উদ্ধার করা হয়। অভিযোগ সূত্রে জানাযায় পার্শ্ব বগুড়া জেলা ধুনট উপজেলার জনৈক ব্যক্তি ১৪ বছর বয়সের নাবালিকা কন্যা সিরাজগঞ্জ জেলা রায়গঞ্জ উপজেলার শৌলিসবলা গ্রামের নানার বাড়ী থেকে পড়ালেখা করত। জনৈক ব্যক্তি চাঁদপুর গ্রামের আত্মীয় মজনু সেখের বাড়ীতে ২৭/১২/২০২১ইং তারিখে ধর্মীয় জালসায় যায়।

২৮ ডিসেম্বর বিকাল ৩ টায় মুন্নি খাতুনের সাথে বাড়ী ফেরার পথে মোতালেব প্রিন্সিপালের বাড়ীর সামনে রাস্তার ব্রীজের উপর পৌঁছা মাত্রই একই গ্রামের মোঃ আমজাদ হোসেন পুত্র ২ সন্তানের মোঃ আজগর আলীর পুত্র মোঃ আবদুল মোমিন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের সহায়তায় মোটর সাইকেল যোগে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে রায়গঞ্জ থানায় এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে রায়গঞ্জ থানা পুলিশের এস.আই খোরশেদ আলম ধানগড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে জনৈক ব্যক্তি বাড়ী থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত ঐ নাবালিকা নারীকে তার পিতার হেফাজোতে দিয়েছে পুলিশ। প্রেমের সম্পর্কের বিষয়ে জানতে চাইলে মেয়েটি জানায় তাদের মধ্যে কোন প্রেমের সম্পর্ক নাই। অপহণের পর তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে কোটে এভিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে হয়েছে বলে মেয়েটি জানায়।

এস.আই খোরশেদ আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। এ বিষয়ে আগামী ৮ জানুয়ারী এক সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় বেশ উতেজনা বিরাজ করছে। সালিশী বৈঠকে অপহরণকারী আবদুল মোমিনকে পুরস্কৃত করা হবে নাকি অর্থের বিনিময়ে আপস মিমাংশা হবে, সেটাই এখন দেখার বিষয়।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ