• শনিবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৮

  • || ১৭ সফর ১৪৪৩

সিরাজগঞ্জে যমুনায় ভয়াবহ ভাঙন, অর্ধশত ঘরবাড়ি বিলীন

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৪ আগস্ট ২০২১  

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার যমুনা নদীর দক্ষিণাঞ্চলে আবারও ভয়াবহ ভাঙন শুরু হয়েছে। গত কয়েকদিনে বাঘুটিয়া ইউপির কয়েকটি গ্রামের প্রায় অর্ধশত ঘরবাড়ি, বহু ফসলি জমি ও গাছপালা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধির কারণে ওই উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল বন্যাকবলিত হয়েছে। এতে বিভিন্ন ফসলসহ জমি তলিয়ে গেছে। এছাড়া প্লাবিত হচ্ছে নতুন নতুন অঞ্চল।  বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমের শুরু থেকেই যমুনায় পানি বাড়ছে। এতে কয়েকদিন ধরে ওই অঞ্চলের বাঘুটিয়া ইউনিয়নের বিনানই ও চরসলিমাবাদসহ কয়েকটি গ্রামে তীব্র ভাঙন শুরু হয়েছে। মুহূর্তের মধ্যেই বাড়িঘর ও গাছপালাসহ ফসলি জমি নদী গর্ভে বিলীন হচ্ছে। অনেকে ভাঙনের মুখ থেকে অনত্র ঘরবাড়ি সরিয়ে নিচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, গত মাসের শেষ দিকে ওই অঞ্চলে ভাঙনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আবারও কয়েকদিন ধরে এ ভাঙনে এলাকায় কমপক্ষে ৫০টি ঘরবাড়ি যমুনায় বিলীন হয়ে গেছে। তারা সহায় সম্বল হারিয়ে এখন মানবেতর জীবন যাপন করছে। এছাড়া লকডাউন খুলে দেয়ার পর শিল্প কারখানা খোলায় চরাঞ্চলের অনেকেই ঢাকা ও অনান্য স্থানে কর্মস্থলে গেছেন। এ কারণে নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির আসবাবপত্র এক স্থান থেকে অন্যত্র নেয়ায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পরিবারের লোকজনের। এ ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পেতে দ্রুত স্থায়ী তীর সংরক্ষন বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে চৌহালী উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন বলেন, বর্ষার শুরু থেকে ৫-৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বহু ঘরবাড়ি নদীতে বিলীন হয়েছে। বিশেষ করে কয়েকদিনে বাঘুটিয়া ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামে ৫০টি ঘরবাড়িসহ বহু গাছপালা নদী গর্ভে চলে গেছে। ক্ষতিগ্রস্তদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সহায়তা দেয়া হচ্ছে এবং ভাঙনের বিষয়টি স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে। 

ভাঙন রোধে (দায়িত্বপ্রাপ্ত) টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম জানান, সোমবার দুপুরে ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। এই উপজেলার দক্ষিণাঞ্চল রক্ষায় স্থায়ী তীর সংরক্ষণ বাঁধ নির্মাণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে প্রকল্প দাখিল করা হয়েছে।

এ প্রকল্প অনুমোদন পাওয়া গেলে দ্রুত কাজ শুরু করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ