• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২১ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

কেঁচো সার উৎপাদনে মন্ডলের মাসিক আয় ৭০ হাজার টাকা!

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৩ আগস্ট ২০২২  

কেঁচো কম্পোস্ট সার উৎপাদনে ব্যাপক সফলতার পাশাপাশি স্বাবলম্বী হয়েছেন রংপুরের পীরগাছা উপজেলার বড়দরগা ফকিড়া গ্রামের ফজলু মণ্ডল। বর্তমানে কেঁচো সার উৎপাদনে তিনি প্রতিমাসে ৭০ হাজার টাকা আয় করছেন! এদিকে ফজলুর দেখাদেখি এলাকার এখন অনেকেই কেচো কম্পোস্ট সার উৎপাদনে ঝুঁকে পড়ছেন।

জানা যায়, স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তার পরামর্শে ও কৃষি বিভাগের সহায়তায় কেঁচো সার উৎপাদন শুরু করেন। প্রথমদিকে নিজের জমিতে ব্যবহার করলেও পরবর্তীতে তিনি বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে উৎপাদন শুরু করেন।

ফজলু মণ্ডল বলেন, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা হোসেন আলী গাজীর পরামর্শে কেঁচো সার উৎপাদন শুরু করি। বর্তমানে প্রতি মাসে ২৫-২৬ টন কেঁচো সার উৎপাদন করছি। স্থানীয় কৃষক ছাড়াও বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে লোকজন এসে তাঁর সার কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।

ফজলু মণ্ডল আরও বলেন, বাণিজ্যিকভাবে এখন কেঁচো সার তৈরি করছি। কেঁচো কম্পোস্ট সারের মূল উপাদান হলো গোবর। প্রতি টন গোবর ক্রয় করতে তাঁর খরচ পড়ে ১ হাজার ৮০০ টাকা। শ্রমিকসহ সব মিলে গড় উৎপাদন পড়ে কেজিতে ৫ টাকা। প্রতি কেজি কেঁচো সার বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকায়। ৩০-৩৫ দিনের মধ্যে কেঁচো সার সংগ্রহ করা যায়। সব মিলে কেঁচো সার থেকে প্রতি মাসে খরচ বাদে প্রায় ৭০ হাজার টাকা আয় হচ্ছে।চ

পীরগাছা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল আলম বলেন, কেঁচো সার জমির উর্বরতা শক্তি বৃদ্ধি করে। মাটিতে পানি ধারণক্ষমতা বাড়ায়, মাটির গঠন উন্নত করে। এ সার ব্যবহার করলে বাম্পার ফলন মেলে। উৎপাদিত ফসলের গুণগত মানও ভালো হয়।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ