মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

শাহজাদপুরে কাছারিবাড়িতে রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী উদযাপনে চয়ন এমপি

শাহজাদপুরে কাছারিবাড়িতে রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী উদযাপনে চয়ন এমপি

সংগৃহীত

বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর রবীন্দ্র কাছারিবাড়িতে তিন দিনব্যাপী উৎসব শুরু হয়েছে।

বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টায় মঙ্গল ফিতা কেটে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ভূমিমন্ত্রী সাধান চন্দ্র। রবীন্দ্র কাছারিবাড়ি অডিটোরিয়ামে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মীর মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ-৬ আসনের সংসদ সদস্য চয়ন ইসলাম, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড.শাহ আজম। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পরা সংগীত পরিবেশন করে।

জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে সকাল থেকেই দর্শনার্থী ও রবীন্দ্র ভক্তদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে কবির স্মৃতিবিজড়িত কাছারিবাড়ি প্রাঙ্গণ।

তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার মধ্যে রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, নৃত্যানুষ্ঠান, আবৃত্তি, নাটক। জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানকে ঘিরে পুরো শাহজাদপুরে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।’

নাটোরের রানী ভবানীর জমিদারীর একটি অংশ শাহজাদপুরের জমিদারী নিলামে উঠলে কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পিতামহ প্রিন্স দ্বারকনাথ ঠাকুর ১৮৪০ সালে মাত্র ১৩ টাকা ১০ আনায় শাহজাদপুরের এই জমিদারী কিনে নেন। ১৮৯০ থেকে ১৮৯৭ এই ৮ বছর কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শাহজাদপুরের জমিদারী দেখাশোনার জন্য এখানে আসতেন এবং সাময়িকভাবে বসবাসও করতেন।

আর এখানে বসেই কবি রচনা করেছেন কবিতা সোনারতরী, চিত্র, চৈতালী, কল্পনা, ছোটগল্প পোষ্ট মাষ্টার, রাম কানাইয়ের নির্বুদ্ধিতা, ব্যবধান, তারা প্রসন্নের কীর্তি, ছুটি, সমাপ্তি, ক্ষুধিত পাষাণ, অতিথি, ৩৮ টি ছিন্ন পত্রাবলী, প্রবন্ধ ও গীতাঞ্জলীর অংশ বিশেষ, নাটক বিসর্জন এর মত সাহিত্য কর্ম।