রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

উল্লাপাড়ায় রোপা আমন ধান কাটা শুরু

উল্লাপাড়ায় রোপা আমন ধান কাটা শুরু

সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বিভিন্ন মাঠে রোপা আমন ধান কাটা শুরু হয়েছে। ধানের ফলন ভালো হারে মিলছে বলে জানিয়েছেন কৃষকেরা।উল্লাপাড়ায় এবারের মৌসুমে ১১ হাজার ৪০ হেক্টর পরিমাণ জমিতে রোপা আমন ধান আবাদের সরকারি লক্ষ্যমাত্রা ধরা ছিলো। সেখানে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪ শ ৬৫ হেক্টর  বেশি পরিমাণ জমিতে আবাদ হয়েছে।

উপজেলার রামকৃষ্ণপুর, সলঙ্গা, হাটিকুমরুল, বড়হর ইউনিয়ন এলাকায় বেশি পরিমাণ জমিতে কৃষকেরা বিভিন্ন জাতের রোপা আমন ধানের আবাদ করেছেন। কৃষকেরা নিজস্ব বীজতলার চারা ছাড়াও হাট থেকে কেনা চারায় আবাদ করেছেন। কৃষকেরা  প্রায় ২ শ ৫০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের রোপা আমন ধানের নিজস্ব বীজতলা করেছিলেন।
উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের অলিদহ, চক নিহাল, সলঙ্গা ইউনিয়নের গোজা, চরবেড়া মাঠ এলাকায় কৃষকেরা তাদের আবাদ করা রোপা আমন ধান কাটতে শুরু করেছেন। কৃষকেরা মাঠ থেকে ধান কেটে বাড়ির উঠোন আঙ্গিনায় নিয়ে মাড়াই করছেন। 

অলিদহ গ্রামের কৃষক লুৎফর রহমান জানান এবারে ছয় বিঘা জমিতে উচ্চ ফলনশীল রোপা আমন ধানের আবাদ করেছেন। এরমধ্যে প্রায় তিন বিঘার ধান কাটা হয়েছে। বিঘা প্রতি বিশ মণ হারে ফলন পেয়েছেন বলে তিনি জানান। তিনি আরো বলেন এবারে রোপা আমন ধানের আবাদে তিনি উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান আবাদ করেছেন। ধান মাড়াইে বিঘা প্রতি মেশিন মালিক ছয়শো টাকা করে নিচ্ছেন। 

সলঙ্গা ইউনিয়নের রাণীনগর মাঠে কৃষক শের আলী দুই বিঘা জমিতে ব্রি-৩৯ ধান আবাদ করেছেন। তিনি ইতিমধ্যেই ধান কাটা শুরু করেছেন। বাম্পার ফলন হবে বলে আশা তার।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সূবর্ণা ইয়াসমিন সুমী বলেন  কৃষকেরা এখন আগ্রহ নিয়ে কম দিনে ফসল ঘরে উঠে এমন সব জাতের ধান আবাদ করছেন। তার বিভাগ থেকে কৃষকদেরকে স্বল্প মেয়াদী জাতের ও বেশি হারে ফলনশীল  নতুন সব জাতের ধানের আবাদ বাড়াতে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদেরকে পরামর্শ ও উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে । 

তিনি আরো বলেন স্বল্প মেয়াদী বলতে কম দিনে ফসল ঘরে উঠে এমন জাতের ধান। তিনি বিভিন্ন এলাকায় খোজ নিয়ে জানতে পারছেন রোপা আমন ধানের ফলন ভালো হারে পাচ্ছেন কৃষকেরা। ব্রি -৮৭ ও ব্রি - ৩৯ জাতের রোপা আমন ধানের বাম্পার ফলন হচ্ছে বলে জানান।