রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ডিজিটাল কনটেন্টের টাকায় বিশ্ব ভ্রমণের স্বপ্ন দেখেন পারভেজ

ডিজিটাল কনটেন্টের টাকায় বিশ্ব ভ্রমণের স্বপ্ন দেখেন পারভেজ

‘ছোটবেলা থেকেই ভ্রমণের নেশা ছিল, যখন স্কুল পড়তাম তখন থেকেই। স্কুল থেকে যখন কোনা ট্যুরের আয়োজন করা হতো তখন আমি থাকতাম প্রথম সারিতে। বিশেষ করে ট্যুরের আয়োজক হিসেবে।’ আলাপচারিতায় এমনটিই বলছিলেন ১২টি দেশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা নেয়া ডিজিটাল কনটেন্ট ক্রিয়েটর পারভেজ চোকদার।

১৯৯৯ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি ফরিদপুরের ভাঙ্গা জন্মগ্রহণ করে পারভেজ চোকদার। বর্তমানে তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করছেন। ইতোমধ্যে ভ্রমণ করেছেন কাতার, সৌদি আরব, জর্ডান, ওমান, থাইল্যান্ড সিঙ্গাপুর, ভারত, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপসহ ইউনাইডেট আরব আমিরাত।

১২টি দেশ ভ্রমণ করেছেন, সবচেয়ে ভালো অভিজ্ঞতা কী ছিল এবং কোথায়? এ প্রশ্নের জবাবে পারভেজ চোকদার বলেন, আমার সবচেয়ে ভালো অভিজ্ঞতা হয়েছিল কাতারে। তারা পর্যটকদের খুবই আন্তারিকতা নিয়ে গ্রহণ করে। আমি যখন কাতার ত্যাগ করি তখন বিনামূল্যে গাড়ি সেবা দেয়, কাতারের অনেক প্রসিদ্ধ খাবারও আমাকে উপহার দেয়া হয়। এটা আমার জন্য দারুণ এক অভিজ্ঞতা।

খারাপ অভিজ্ঞতা সম্পর্কে পারভেজ বলেন, আমি কিছু দেশে যাতায়াতে জটিলতায় পড়েছিলাম। কিছুটা নিজের ভুলেই বড় বিপদও হতে পারতো। সৌভাগ্য খারাপ কিছু হয়নি। তবে ভ্রমণ করতে গিয়ে যাতায়াতের ব্যাপারে অনেক কিছু শিখেছি, যা আগামী দিনে সহায়ক হবে।

সবচেয়ে ভালো সময় কেটেছে কোন দেশে কিংবা কেউ যদি ভ্রমণ করতে চায় ১২টি দেশের কোন দেশগুলোতে ভ্রমণের পরামর্শ দেবেন? এ প্রশ্নে পারভেজ বলেন, আমার থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুর ভালো লেগেছে। আমার মনে হয় কেউ যদি ভ্রমণ করতে চায় তাহলে এই দুটি দেশ ঘুরে দেখতে পারেন। আশা করি অনেক ভালো লাগবে। তবে বাঙালি খাবারের কিছুটা অভাবতো থাকছেই।কনটেন্ট ক্রিয়েটর পারভেজ চোকদার ২০১৭ সালে ইউটিউবে সিলভার বাটন অর্জন করেন। বর্তমানে ইউটিউবে তার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার চার লক্ষাধিক। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তাকে ফলো করেন ১৬ লাখেরও বেশি মানুষ।পারভেজ চোকদার ভ্রমণের পাশাপাশি তার কনটেন্ট নির্মাণে আয় করা অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করেন সমাজের অবহেলিত ও দরিদ্র মানুষকে।

ছিন্নমূল মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কাজেও সক্রিয় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন তিনি। গত বছর ফরিদপুর জেলার বিভিন্ন এলাকায় বসবাস করা সুবিধাবঞ্চিত তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে খবরের শিরোনামে জায়গা করে নেন। আবার পঞ্চগড়ের স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত ৫০ বছর বয়সী কুলসুম বেগমসহ গত কয়েক বছরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে প্রশংসা কুড়ান এই তরুণ।লেখক হিসেবেও এই ভ্রমণ পিপাসু তরুণের খ্যাতি রয়েছে। ২০২২ সালে অমর একুশে গ্রন্থমেলায় পারভেজ চোকদারের একক কাব্যগ্রন্থ নস্টালজিক প্রকাশ হয়। পারভেজ চোকদার বর্তমানে দেশের জাতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদক হিসেবে কাজ করছেন।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ