রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মাকে বুঝিয়ে ক্রিকেটে নাম লেখানো ছেলেটির রাজকীয় অভিষেক

মাকে বুঝিয়ে ক্রিকেটে নাম লেখানো ছেলেটির রাজকীয় অভিষেক

ভারতের বিপক্ষে রাজকীয় অভিষেক হলো তানজিম হাসান সাকিবের। এশিয়া কাপে সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে শুরুতেই ভারতের টপ অর্ডারকের ধসিয়ে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন অভিষিক্ত এই পেসার। শুক্রবার বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের কাছ থেকে অভিষেক ক্যাপ পেয়ে মাঠে নামেন জুনিয়র সাকিব। নিজের প্রথম ম্যাচেই রাখেন দলের জয়ে অবদান।

জুনিয়র সাকিবের প্রিয় খেলোয়াড় মহেন্দ্র সিং ধোনি ও মুশফিকুর রহিম। দুই উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানের পরিশ্রম ও ক্রিকেট এথিকসে মুগ্ধ হয়েই ক্রিকেটে নাম লেখানো তার। তাদের মতো পরিশ্রম করে জাতীয় দলে দীর্ঘদিন খেলার স্বপ্ন দেখেন। নিজের স্বপ্নের যাত্রায় শুরুটা আজই হলো। অধিনায়ক সাকিবের কাছ থেকে ক্যাপ পেয়েই উজ্জীবিত হয়ে উঠলেন তিনি। নিজের প্রথম ওভারেই ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে সাজঘরের পথ দেখান এই তরুণ। পরে নেন আরেক অভিষিক্ত তিলক ভার্মার উইকেট। যুব বিশ্বকাপে ভারতীয় এই পেসারকেও আউট করেছিলেন তিনি। আজও তার অভিষেক ম্যাচে জুনিয়র সাকিবের শিকার হলেন তরুণ এই টপ অর্ডার ব্যাটার। সবমিলিয়ে ৭.৫ ওভার বোলিং করে ৩২ রান খরচায় তার শিকার দুটি উইকেট।

শেষ ওভারে ভারতের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১২ রান। সাকিব বল তুলে দেন অভিষিক্ত জুনিয়র সাকিবের হাতে। টানা তিন বল মোহাম্মদ শামিতো ব্যাটেই লাগাতে পারেননি। চতুর্থ বলে চার মেরে ম্যাচ জমিয়ে তুললেও পঞ্চম বলে ডাবলস নিতে গিয়ে রান আউট হতেই জয়ের আনন্দে মাতে বাংলাদেশ। এশিয়া কাপে খালি হাতে ফিরলেও ভারতের বিপক্ষে এই জয় বিশ্বকাপের আগে নিশ্চিতভাবেই দলকে উজ্জীবিত করবে। ৪ ভাই-বোনের মধ্যে তৃতীয় তানজিম সাকিব। মা-বাবার একমাত্র ছেলে বলে বেশি আদরের। বোনদেরও নয়নের মণি। জাতীয় দলের হয়ে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা জাকির হাসান দূরসম্পর্কের আত্মীয়। ওই উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানকে বিকেএসপিতে ভর্তি হতে দেখে তানজিম সাকিবও স্বপ্ন দেখেন সেখানে ভর্তি হওয়ার। 

ক্লাস ওয়ানে পড়ার সময় মহল্লায় টেপ টেনিস দিয়ে ক্রিকেটে হাতেখড়ি। ক্রিকেট বলে খেলা শুরু যখন ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়েন। মা সেলিনা পারভিনের আবেগ কাজে লাগিয়ে চট্টগ্রামে এক মাসের ক্যাম্পে গিয়েছিলেন। ক্যাম্প কমান্ড্যান্ট কোচ মোহাম্মদ কায়সার আহমেদ তার ব্যবসায়ী বাবা গৌউস আলীকে বোঝান। বাবা তাতে প্রভাবিত হওয়াতেই ক্রিকেটার হতে পেরেছেন। প্রথমবার ট্রায়াল মিস করে দুই বছর পর ২০১৭ সালে ভর্তি হন বিকেএসপিতে। সেই শুরু তানজিম সাকিবের। শুক্রবার তো জাতীয় দলের হয়ে অভিষেকই হয়ে গেলো। তরুণ এই পেসার স্বপ্ন দেখেন লম্বা সময় ধরে দলকে সার্ভিস দেওয়ার।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ