রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

এসিসির পক্ষপাতমূলক সিদ্ধান্তে সম্মতি ছিলো বিসিবির

এসিসির পক্ষপাতমূলক সিদ্ধান্তে সম্মতি ছিলো বিসিবির

বৃষ্টির শঙ্কা মাথায় নিয়ে কলোম্বে শুরু হচ্ছে এশিয়া কাপের সুপার ফোরের লড়াই। আর সেই শঙ্কা থেকেই শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) এক বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নেয় এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। টুর্নামেন্টের মাঝপথেই ম্যাচে রিজার্ভ ডে রাখার ঘোষণা দেয় এসিসি।

কিন্তু সেটি কেবল ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচটির জন্য। বাকি ম্যাচগুলো বৃষ্টিতে পন্ড হোক আর নাই হোক তাতে কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই এশিয়ার ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির। তাদের মূল লক্ষ্যই যেন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটির আয়োজন করা। এসিসির এই সিদ্ধান্ত তাদের দাঁড় করায় সমালোচনার কাঠগড়ায়। ক্রিকেটপ্রেমীরা তো বটেই, এসিসির এই সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন টাইগার হেড কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহে।

এসিসির ভাষ্য অনুযায়ী, ১০ সেপ্টেম্বর বৃষ্টির কারণে ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচটি মাঠে না গড়ালে সেটি পরদিন অনুষ্ঠিত হবে।এমন পক্ষপাতমূলক আচরণে যেখানে সবাই অসন্তুষ্ট, সেখানে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানালো এসিসি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবির সম্মতিতেই।

এক টুইটবার্তায় বিসিবি জানায়, এশিয়া কাপের সুপার ফোর পর্বে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের জন্য রিজার্ভ ডে যুক্ত করা হয়েছে। যা এশিয়া কাপের প্লেয়িং কন্ডিশন বিবেচনায় কার্যকর উপায়ে সংশোধিত হয়েছে । অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য জানান হচ্ছে, চারটি অংশগ্রহণকারী দল এবং এসিসির সম্মতিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এদিকে প্রেমাদাসায় সুপার ফোরের বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ৯০ শতাংশ। আর বজ্রসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ৫৪ শতাংশ। ৯৮ শতাংশ সময়ই আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে আর বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ১১ দশমিক ৩ মিলিমিটার। শুধু বাংলাদেশের ম্যাচেই নয়। ৭০-১০০ শতাংশ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ফাইনাল পর্যন্ত।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

সর্বশেষ: