শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

গরুর গোশতের শুঁটকি খাবেন? তো দেখুন রেসিপি

গরুর গোশতের শুঁটকি খাবেন? তো দেখুন রেসিপি

সংগৃহীত

শুঁটকি খাওয়ার কথা মনে পড়লেই সবার আগে আসে মাছের শুঁটকির কথা। আর শুঁটকি বা মাছকে রোদে শুকিয়ে সংরক্ষণ তেমনই একটি পদ্ধতি যাতে মাছকে রোদে রাখা হয় পানি অপসারণের জন্য। কারণ পানির কারণেই বিভিন্ন ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র অনুজীব বেঁচে থাকে এবং মাছকে পঁচতে সহায়তা করে।

খোলা জায়গায় বাতাস এবং রোদ ব্যবহার করে মাছকে শুকানোর প্রথা সেই প্রাচীন কাল থেকেই চলে আসছে। কিন্তু গরুর গোশত দিয়েও যে শুঁটকি করা যায় এটা অনেকেরই অজানা। আমাদের দেশের বেশকিছু অঞ্চলে গরুর গোশতের শুঁটকির চল রয়েছে। বিশেষ করে কোরবানির গরুর গোশত দিয়ে অনেকে শুঁটকি বানিয়ে থাকেন।

এবার কোরবানির ঈদের আমেজ থাকতে থাকতে আপনিও গরুর গোশতের শুঁটকি বানাতে পারেন নিজেই।

খুব বেশি ঝামেলা না করে, শুধুমাত্র রোদে শুকিয়ে বানাতে পারেন মাছের শুঁটকি। তবে গুরুর গোশতের শুঁটকি বানাতে কিছু কৌশল মানতেই হবে। তা না হলে, নষ্ট হয়ে যেতে পারে গোশত। শুঁটকি হলেও, সেটি আসলে খাওয়ার যোগ্য থাকে না। তাই সঠিক নিয়মে করতে হবে গরুর গোশতের শুঁটকি।

গুরুর গোশতের শুটকি করতে লাগবে হাড় ও চর্বি ছাড়া মাংস, হলুদ, বড় চালনি, গুনা তার বা মোটা সুতা। প্রথমে গোশত টুকরো করে কেটে নিন। তারপর ধুয়ে শুধু হলুদ দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এবার একটা পাতিলে গোশতগুলো নিয়ে পানি ছাড়া সেদ্ধ করে নিতে হবে।

তকে খেয়াল রাখতে হবে গোশতের ভেতরে যেন কাঁচা না থাকে। কারণ কাঁচা গোশতের শুটকি হয় না। সেদ্ধ হয়ে গেলে চালুনিতে ঢেলে দিন। তারপর পানি ঝরিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। এরপর গুনা তার বা সুতাতে গেঁথে কড়া রোদে শুকাতে হবে। চাইলে চুলার আঁচেও শুকাতে পারেন। তবে রোদে শুকানোই সবচেয়ে ভালো। ব্যাস! হয়ে গেল গরুর গোশতের শুটকি।

এরপর সুতা বা তার থেকে খুলে এয়ার টাইট বাক্সে বা টিনের কৌটায় রাখুন গুরুর গোশতের শুটকি। এবার মন চাইলেই রান্না করে খেতে পারেন যখন তখন।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: