শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

গ্রামের পুকুরে বিশাল রুই মাছ দেখার জন্য এলাকাবাসীর ভিড়

গ্রামের পুকুরে বিশাল রুই মাছ দেখার জন্য এলাকাবাসীর ভিড়

সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন আশ্চর্যজনক ঘটনা দিলেই ভাইরাল হয়ে যায়। সেটা নাচ, গান, মাছ ধরা, সাপ ধরা কিংবা অশ্লীল ভিডিও হতে পারে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় মাছের এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, যেটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। প্রশংসা করছেন  নেটিজনরাও। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে গ্রামের বিশাল রুই মাছ দেখার জন্য এলাকাবাসী ভিড় জমিয়ে ফেলেছে। ভিডিওটি তুমুল ভাইরাল হয়ে যায়।

আসুন এবার আমরা জেনে নিই নিয়মিত রুই মাছ খাওয়ার যত উপকার। মাছে-ভাতে বাঙালি। তাই তো বাঙালির খাবার তালিকায় নিয়মিত থাকে মাছ। আবার মাছের মধ্যে রুই-কাতলার চাহিদাই বেশি। নিয়মিত রুই মাছ খেলে শরীরে যেভাবে সেটি প্রভাব ফেলে

রক্ত জমাট বাঁধার সমস্যা দূর করে : ভাইরাস সংক্রমণের কারণে অনেকের শরীরেই রক্ত জমাট বাঁধার সমস্যা দেখা দিচ্ছে। এ সমস্যা কমাতে পারে রুই মাছ। এ মাছ নিয়মিত খেলে রক্তপ্রবাহ কিছুটা বাড়তে শুরু করে। ফলে ইকোসোনোয়েড নামক হরমোনের মাত্রা কমে। এটি রক্ত জমাট বাঁধার অন্যতম কারণ। এই হরমোনের প্রভাব কমায় রক্ত জমাটের আশঙ্কাও কমে।

সুস্থ থাকে ত্বক : ত্বকের নানা রকম সংক্রমণ বা প্রদাহের সমস্যাও কমতে পারে নিয়মিত এই মাছ খেলে। এই মাছে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ত্বককে নানা সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করতে পারে।

দৃষ্টিশক্তি ঠিক রাখে : ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের আরও কিছু গুণ রয়েছে। কাজের কারণে সারা দিন কম্পিউটারের সামনে কাটাতে হয় অনেককেই। তা ছাড়া স্মার্টফোন তো আছেই। এগুলোর আলো চোখের ওপর নানা ধরনের প্রভাব ফেলে। দৃষ্টিশক্তি কমে যায়, চোখ শুকিয়ে যায়। চোখের এ ধরনের সমস্যা কমাতে পারে রুই মাছ। ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড চোখের বহু সমস্যাকে প্রতিহত করে।

হাড়ের ব্যথা কমায় : যারা হাড়ের ব্যথায় ভোগেন, তারা নিয়মিত এই মাছ খেলে সমস্যা কমবে অনেকটাই। মাছের কিছু উপাদান হাড়ের সংযোগস্থল নমনীয় করে তোলে। ফলে ব্যথা কমে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

সর্বশেষ: