• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২১ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সজনে পাতার পাউডার তৈরিতে সফল খুলনার মল্লিক, রপ্তানি করছেন বিদেশেও

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৫ আগস্ট ২০২২  

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার নবদ্বীপ মল্লিক সজনে চাষ করে সফলতা অর্জন করেছেন। বর্তমানে সজনে চাষের পাশাপাশি সজনের পাতাকে রোদে শুকিয়ে গুড়ো করে বিদেশেও রপ্তানি করছেন। তিনি সজনে পাতার গুড়ো তৈরী ও বিদেশে রপ্তানি করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন।

জানা যায়, এবছর জানুয়ারীতে মাত্র দেড় বিঘা জমিতে ৪০০টি সজনে গাছ লাগিয়ে বাণিজ্যিকভাবে চাষ শুরু করেন। এখন সেই গাছে ঝুলছে সজনে। মাত্র ৮ মাসেই সফলতার মুখ দেখেন তিনি। সজনে বিক্রি করার পর গাছ ছাটাই করতে হয়। তখন অনেক পাতা নষ্ট হয়। কিন্তু বর্তমানে তিনি সেই সজনে পাতাকে রোদে শুকিয়ে পাউডার করছেন। সেই পাউডার দেশের পাশাপাশি বিদেশেও বিক্রি করে অনেক টাকা আয় করছেন।

কৃষক নবদ্বীব মল্লিক বলেন, সজনে ও সজনে পাতায় অনেক পুষ্টিগুন রয়েছে। বাজারে সজনের ব্যাপক চাহিদাও আছে। তাই আমি এবছর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে আমার দেড় বিঘা জমিতে বারোমাস চাষ যোগ্য ৪০০টি সজনে চারা লাগিয়েছিলাম। মাত্র ৮ মাস পরেই সজনে বিক্রি করতে পারছি। সজনে বিক্রির পর গাছ ছাটাই করতে হয়। তাতে প্রচুর পরিমাণে সজনে পাতা ফেলে দিতে হয়।

তিনি আরো বলেন, ব্যবসায়ী আবু নাসের ভাইয়ের পরামর্শে সজনে পাতা গুড়ো করে পাউডার করি। পাতা বেশি দিন সংরক্ষণ না করা গেলেও শুকনো পাতার গুড়ো অনেকদিন রাখ যায়। গাছ থেকে প্রায় শত কেজি পাতা কেটে ৮-৫ দিন রোদে শুকিয়ে স্থানীয় মিলে গুড়ো করে ১৮ কেজি গুড়ো পেয়েছি। সেই গুড়ো সাতক্ষীরার একটি শপিং মলে এবং বৃক্ষমেলায় বিক্রি করা হয়েছে। এতে ব্যাপক সাড়াও পেয়েছি। বাকি গুড়ো ২ হাজার টাকা কেজিতে বিক্রি করার জন্য প্যাকিং করে রাখা হয়েছে। দেশে ও বিদেশে এই সজনে ও সজনে পাতা বিক্রি করে লক্ষ টাকা আয় হচ্ছে।

ব্যবসায়ী আবু নাসের মোহাম্মদ আবু সাঈদ বলেন, ইন্টার্নেটের মাধ্যমে সজনে পাতার পাউডারের চাহিদা ও মূল্য সম্পর্কে জানতে পারি। এ পাতার অনেক গুনাগুন রয়েছে। আগামী মাসে এই পাউডারের স্যাম্পল দুবাইয়ে পাঠানো হবে।

ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. ইনসাদ ইবনে আমিন বলেন, শজনে ও এর পাতায় পুষ্টিগুণ রয়েছে। এ জন্য আমরা বারোমাসি শজনের ফলনের উদ্যোগ নিয়েছি। বারোমাসি সজনে চাষের উদ্যোগ নেওয়ার জন্য নবদ্বীপকে সাধুবাদ জানাই। নবদ্বীপের এই সজনে পাতার পাউডার বিদেশে রপ্তানি হলে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে ভূমিকা রাখবে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ