শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

সমর্থকদের প্রতি ভিনিসিয়ুসের আবেগঘন বার্তা

সমর্থকদের প্রতি ভিনিসিয়ুসের আবেগঘন বার্তা

সংগৃহীত

ব্যর্থতার বৃত্ত যেন কোনোভাবেই ভাঙতে পারছে না ব্রাজিল। বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে টাইব্রেকারে ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে বিদায় নেয়ার ক্ষত না শুকাতেই কোপা আমেরিকা থেকে বিদায় নিয়েছে সেলেসাওরা।

দুই টুর্নামেন্টেই টাইব্রেকারে কপাল পুড়েছে ব্রাজিলের। নেইমার জুনিয়রের অনুপস্থিতিতে এবারের মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে বড় দায়িত্ব ছিল ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের কাঁধে। তবে দলকে প্রত্যাশিত ফল এনে দিতে পারেননি তিনি।

এমন বিদায়ের পর কোচ দরিভাল জুনিয়র নিজেই ব্যর্থতার দায় মেনে নিয়েছিলেন। দিনদুয়েক পর দলের বড় তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়রও এবার নিজের কাঁধে নিয়েছেন দলীয় ব্যর্থতার দায়।

সামাজিক মাধ্যমে তিনি লিখেছেন, ‘কোপা আমেরিকার ইতি। এখন সময় অনুধাবনের। আবারও পেনাল্টিতে হতাশার অনুভূতি। আমি দুই হলুদ কার্ড পেয়েছি। বাইরে থেকে নিজ দলকে ছিটকে যেতে দেখতে হয়েছে।’

এরপর তিনি লেখেন, ‘কিন্তু এটা আমার দোষ। সে জন্য আমি ক্ষমা চাচ্ছি। আমি জানি কীভাবে সমালোচনা শুনতে হয় এবং বিশ্বাস করুন, সবচেয়ে কঠিন (সমালোচনা) নিজের ভেতর থেকেই আসে।’

তবে বয়স বিবেচনায় জাতীয় দলকে এখনো অনেক কিছু দেয়ার সুযোগ আছে ভিনিসিয়ুসের। তাই আশায় বুক বাঁধছেন তিনি।

২০১৯ সালে জাতীয় দলে অভিষেকের পর গত তিন বড় টুর্নামেন্টে (কোপা ২০২১ ও ২৪ এবং ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপ) দলকে ভালো কিছু উপহার দিতে না পারলেও পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারানো ঐহিত্য ফিরিয়ে দিতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ভিনিসিয়ুস।

ভিনি বলেন, ‘ভাগ্যক্রমে আমার জাতীয় দলের যাত্রা মাত্রা শুরু। সতীর্থদের সঙ্গে নিয়ে আমার সুযোগ আছে জাতীয় দলকে তার যোগ্য জায়গায় ফিরিয়ে নেয়ার। আমরা সেরা হয়ে ফিরে আসব।’

আপাতত ভিনিদের দায়িত্ব কনমেবল অঞ্চলের বাছাইয়ে দলকে দারুণ কিছু জয় উপহার দিয়ে ২০২৬ বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করা। বাছাইয়ে খুব একটা ভালো অবস্থানে নেই সেলেসাওরা।

৬ ম্যাচে মাত্র ২ জয় ও ১ ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ১০ দলের মধ্যে ছয়ে অবস্থান করছে তারা। কনমেবল থেকে আগামী বিশ্বকাপে সেরা ৬টি দল সরাসরি সুযোগ পাবে। ফলে ঝুঁকিতে আছে পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: