শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

তাড়াশে ফলজ-বনজ ও ঔষধী গাছের চারা বিতরণ করলেন আজিজ এমপি

তাড়াশে ফলজ-বনজ ও ঔষধী গাছের চারা বিতরণ করলেন আজিজ এমপি

সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে বৃক্ষপ্রেমী অধ্যক্ষ মো. শাহিনুর ইসলামের ১ হাজার ফলজ-বনজ ও ঔষধী গাছের চারা বিতরণ করলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল আজিজ ও বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আব্দুস সালাম।

বুধবার সকালে উপজেলার বস্তুল টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।
বস্তুল টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. মাসুদ রানা বাদলের সভাপতিত্ব বারুহাস ও তালম ইউনিয়নের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও উপস্থিত অতিথিদের মাঝে প্রায় ১ হাজার ফলজ-বনজ ও ঔষধী গাছের চারা বিতরণ করা হয়।

বৃক্ষপ্রেমী অধ্যক্ষ মো. শাহিনুর ইসলাম “সবুজ ছায়ায় সাঁজাবো আমার এলাকা” স্লোগানে ৫ বছর যাবৎ বিনা মুল্যে ফলজ-বনজ ও ঔষধী গাছের চারা বিতরণ কার্যক্রম চলমান রেখেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এবছরেও ১ হাজার ফলজ-বনজ ও ঔষধী গাছের চারা বিতরণ করলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল আজিজ বলেন, আমাদের পরিবেশকে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের হাত থেকে রক্ষা করতে হলে পর্যাপ্ত পরিমাণ গাছ লাগাতে হবে। বনায়ন বাড়াতে হবে। ব্যাপক জনসচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে পরিবেশ রক্ষায় সবাইকে কাজ করতে হবে। আধুনিক রাষ্ট্রের যোগ্যতম স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে বৃক্ষরোপনের কোন বিকল্প নাই৷ তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সুদক্ষ নেতৃত্বে দেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল হয়েছে। দেশে বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। দেশ সবুজ রাখতে হলে বৃক্ষরোপণের বিকল্প নেই। কারণ গাছ আমাদের অক্সিজেন দেয়। এই অক্সিজেন আমাদের বাঁচিয়ে রাখতে সাহায্য করে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আব্দুস সালাম। তিনি বলেন, বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে দেশকে রক্ষা করতে আমাদের অবশ্যই পরিবেশ রক্ষায় সর্বোচ্চ মনোযোগ দিতে হবে। আগামী প্রজন্মের জন্য বাসযোগ্য পৃথিবী দিয়ে যেতে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অত্যন্ত জরুরি একটি কাজ।

আইসিটি শিক্ষক মো. শামিউল হক শামীমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বারুহাস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ময়নুল হক, তাড়াশ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. মশগুল আজাদ, ডা. মো. ইউসুফ, তাড়াশ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নুরে আলম, বারুহাস ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মাসুদ রানা, তাড়াশ সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. রেজাউল করিম, তাড়াশ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইকবাল হোসেন রুবেল, আওয়ামীলীগ নেতা মহাসিন রেজা, প্রধান শিক্ষক মো. আনোয়ার হোসেন, তাড়াশ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক হাদিউল হৃদয়, শিক্ষক গোলাম সোহরাওয়ার্দী, মো. হাসান ওয়ারেছী, হেলাল উদ্দিন, মোজদার হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সহকারী শিক্ষকদ্বয়।

সর্বশেষ: