শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১

সিরাজগঞ্জে হাইব্রিড বেগুনের বাম্পার ফলন, কৃষক খুশি

সিরাজগঞ্জে হাইব্রিড বেগুনের বাম্পার ফলন, কৃষক খুশি

সিরাজগঞ্জে সারা বছর হাইব্রিড বেগুন চাষাবাদে বাম্পার ফলন হয়েছে। এ বেগুনের ক্ষেত অনেক স্থানে এখন চোখে পড়ার মতো। স্থানীয় হাট-বাজারে বেচাকেনা হচ্ছে নানা রঙ্গের এ বেগুন। দাম ভালো থাকায় হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, জেলার ৯টি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে প্রায় ৫’শ হেক্টর জমিতে এ বেগুন চাষাবাদ করেছে কৃষকেরা। নতুন প্রযুক্তিতে হাইব্রিড লাভজনক এ বেগুন সারা বছরই চাষাবাদ হচ্ছে। এ চাষ বেশি হচ্ছে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ, উল্লাপাড়া, কামারখন্দ, কাজিপুর ও সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে। 

এছাড়া জেলার অনান্য স্থানে এ বেগুন চাষাবাদ করা হচ্ছে। প্রতিদিন কৃষকেরা জমি থেকে বেগুন তুলে বস্তা ভর্তি করে আড়ৎ ঘরসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে বিক্রি করছে। কৃষি বিভাগের পরামর্শে কৃষকেরা কম খরচে এ চাষাবাদে ঝুকছে। এ হাইব্রিড বেগুনের মধ্যে বেগুনি ,সাদা ও কালচে রঙ্গের বেগুন চাষ বেশি হচ্ছে এবং ফলনও ভালো হচ্ছে। তবে হাট-বাজারে সাদা রঙ্গের বেগুনের কদর বেশি। স্থানীয় কৃষকেরা বলছেন, জমিতে অনান্য ফসলের পাশাপাশি সারা বছরই এ বেগুন চাষাবাদ করা হচ্ছে। 

প্রতি বিঘা জমিতে এ বেগুন চাষাবাদে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচ হয় এবং উৎপাদন হয়ে থাকে ৪০ থেকে ৪২ মণ বেগুন। বেগুন চাষে এখন বাম্পার ফলন ও দাম ভালো থাকায় খুশি। এছাড়া বেগুন ক্ষেতে সাথী ফসল হিসেবে মিষ্টি সজসহ অনান্য ফলসও চাষ হয়ে থাকে। জেলা উপজেলা শহরসহ বিভিন্ন স্থানে এ বেগুনের আড়ৎ ও খোলা হয়েছে বছর ধরেই। আড়ৎদার ও ব্যবসায়ীরা এ বেগুন ক্রয় করে প্রতিদিন ট্রাকযোগে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করছে। 

বর্তমানে বাজারে প্রতিমণ বেগুন পাইকারি দরে ১ হাজার টাকা থেকে ১১’শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে এবং ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি খুচরা দামেও হাট-বাজারে বিক্রি হচ্ছে। বিশেষ করে হতদরিদ্ররা শহর বন্দরে সাইকেলে ঝাকা বেঁধে ও ভারে করে এ বেগুন বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছে। তবে এখন বাজার মূল্য বেশি থাকায় জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। 

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) আ জা মু আহসান শহীদ সরকার জানান, সারা বছর হাইব্রিড বেগুন চাষাবাদে বাম্পার ফলন হয়েছে। এ চাষাবাদে কৃষকদের পরামর্শও দেয়া হচ্ছে। বেগুনের  বাজার বখেন ভালো থাকায় কৃষকেরা খুশি। এ লাভজনক চাষে কৃষকদের আরো পরামর্শ দেয়া হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। 

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

সর্বশেষ: