• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

কাজিপুর পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান ও নবাগত ইউএনও

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০২২  

কাজিপুর উপজেলায় শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে নিপূণ হাতে কাঁদামাটি, খড়, বাঁশ, সুতলি ও রং দিয়ে তৈরি হওয়া প্রতিমাগুলো বর্ণিল সাজে সেজেছে কাজিপুরে ২০ টি পূজা মণ্ডপ। উপজেলায় ১ টি পৌরসভা ও ১২ টি ইউনিয়নে ২০ টি পূজা মণ্ডপ রয়েছে। এর মধ্যে পৌরসভায় ৩ টি,সোনামুখি ইউনিয়নে ৫ টি,কাজিপুর ইউনিয়নে ৪ টি,মাইজবাড়ি ২ টি,নাটুয়াপাড়া ২ টি,চালিতাডাঙ্গা ২ টি,শুভগাছা ১ টি,ও গান্ধাইল ইউনিয়নে ১ টি পূজা মণ্ডপ রয়েছে।পূজা মণ্ডপের সার্বিক অবস্থা জানতে ৩ তারিখে সন্ধায় কাজিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী ও উপজেলা নবাগত ইউএনও সুখময় সরকার বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আঃলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ রেফাজ উদ্দিন, কাজিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ শ্যামল কুমার দত্ত সহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী বৃন্দ। এ সময় অতিথি বৃন্দ উপজেলার পৌর কেন্দ্রীয় সার্বজনীন মন্দির,মেঘাই বারোয়ারী শ্রী দুর্গা মন্দির, সোনামুখি বাজার শ্রী দুর্গা মন্দির,গান্ধাইল শ্রী দুর্গা মন্দির সহ বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শন কালে উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী বলেন, সামাজিক সম্প্রীতির দেশ আমাদের বাংলাদেশ। এখানে আমরা সকল ধর্মের মানুষ মিলেমিশে সম্প্রীতির মাধ্যমে বাস করি। তাই দুর্গাপূজা যাতে সুষ্ঠ শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয় সেদিকে আমাদের সকলকে খেয়াল রাখতে হবে।শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়ে শেষ হয় সে বিষয় যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের আহবান জানান।

নবাগত ইউএনও সুখময় সরকার বলেন, উপজেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসন পূজা ভালোভাবে পালনের লক্ষ্যে সব ধরনের সহযোগিতা করে যাচ্ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইন শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে করণীয় বিষয়ে যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। থানা অফিসার ইনচার্জ শ্যামল কুমার দত্ত পিপিএম বলেন, সুষ্ঠুভাবে পূজা পালনের জন্য শুরু থেকে প্রতিমা বিসর্জন পর্যন্ত সর্বোচ্চ নিরাপত্তা, নজরদারি ও মনিটরিং অব্যাহত থাকবে। প্রত্যোকটি পূজা মণ্ডপে পুলিশ সহ আনসার বাহিনী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া পুলিশ নজরদারির জন্য মোবাইল টিম রয়েছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ