• বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৫ ১৪২৯

  • || ২৯ জ্বিলকদ ১৪৪৩

শেখ হাসিনাই থাকবেন নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান- আ. রহমান

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ কাজিপুর উপজেলা পরিষদ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইনশাল্লাহ নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেই নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ, অবাধ ও সুষ্ঠু। আর সেই নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান থাকবেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। আমরা বিশ্বাস করি সেই নির্বাচনে এই বাংলার ১৬ কোটি মানুষ যারা শেখ হাসিনার উন্নয়নের সুফল পেয়েছে, তারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে ম্যান্ডেট দেবে। আবারও সরকার গঠন করবেন শেখ হাসিনা।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ওরা নির্বাচন করতে চায় না। ওরা আমাদের হুমকি দিয়ে বলে আগামী নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে। তা না হলে এই দেশে নির্বাচন হতে দেবে না। খালেদা জিয়া বলে, পাগল ও শিশু ছাড়া কেউ নিরপেক্ষ নয়। তারা এখন নির্বাচনের জন্য পাগল ও শিশু খুঁজছে।

তিনি বলেন, এই দেশের মানুষকে তারা আগুনে পুড়িয়ে ছারখার করেছে। ওরা মানুষের উপর পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করেছে, গাড়ি ভাংচুর করেছে। ১৩৭ জন মানুষকে ওদের অগ্নিসন্ত্রাসের কাছে জিম্মি হয়ে জীবন দিতে হয়েছে। ওরা আবারও নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে পেছন দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়, নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে চায়। ওরা অন্ধকার চোরাবালির পথে ক্ষমতার মসনদে বসতে চায়। কিন্তু যতদিন পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটা নেতাকর্মী বেঁচে আছে, ততদিন ওদেরকে সন্ত্রাস করতে দেয়া হবে না। বাংলার মাটিতে ওদেরকে নিশ্চিহ্ন করা হবে।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এসএম কামাল হোসেন বলেন, শেখ হাসিনা জনগণের কথা ভাবেন, মানুষের জন্য স্বপ্ন দেখেন, মানুষের চোখের ভাষা বোঝেন। করোনায় সারাবিশ্ব ক্ষতবিক্ষত হয়েছিল; কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ক্ষতবিক্ষত হয়নি। ওই বিএনপি জামায়াত বলত ২০ লাখ লোক না খেয়ে মারা যাবে। কিন্তু আল্লাহর রহমতে একটি লোকও না খেয়ে মারা যায়নি। বরং অর্থনীতির ভিত্তির উপর বাংলাদেশ দাঁড়িয়ে ছিল।

তিনি বলেন, ২০২২ সাল হবে বাঙালির জন্য তাক লাগানোর বছর। ২০২২ সালের জুন মাসে সেই পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে যানবাহন চলবে। যে পদ্মা সেতু নিয়ে বিএনপি জামায়াত ষড়যন্ত্র করেছিল। এছাড়াও মেট্রোরেল হচ্ছে, কর্ণফুলী টানেল হচ্ছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে।

সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য মেরিনা জাহান কবিতা, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ তালুকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বাবু বিমল কুমার দাস, আব্দুর রহমান, সদস্য জান্নাত আরা হেনরী, সিরাজগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয় সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কে. এম হোসেন আলী হাসান।

বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত হোসেনের সভাপতিত্বে সম্মেলন পরিচালনা করেন খলিলুর রহমান সিরাজী।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ