• শনিবার   ১৩ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৯ ১৪২৯

  • || ১৫ মুহররম ১৪৪৪

কাজিপুর ভূমি অফিসের সেবা ও কর্মপরিবেশে মুগ্ধ এমপি-ডিসি

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২২  

সেবায় এবং কর্মপরিবেশে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলা ভূমি অফিস এখন অন্য যেকোনো উপজেলা ভূমি অফিসের জন্যে আদর্শ স্থানীয়। এই অফিস এখন ভূমি সংক্রান্ত সব কাজ শতভাগ অনলাইনে সম্পন্ন করছে জেনে খুবই ভালো লাগছে। আর একটি জরাজীর্ণ ভবনের সৃজনশীল সংস্কারের ফলে এখন অফিস ও তার সামনের অংশটি অনেকটা গার্টেন সিটির আদল পেয়েছে। আশা করি জনগণ এখন থেকে নিশ্চিন্তে সেবা নিতে পারবে।

কাজিপুর উপজেলা ভূমি অফিস পরিদর্শনে এসে কথাগুলো বলেন জাতীয় সংসদের সিরাজগঞ্জ-১ আসনের এমপি প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়। তিনি আরো বলেন,  ভূমিমন্ত্রী মহোদয়কে আমি আমন্ত্রণ জানাচ্ছি এই সুন্দর আয়োজনটি দেখার জন্যে। নিশ্চয়ই তিনি খুশি হবেন।

এ সময় তিনি একজন সেবাগ্রহীতার নিকট ডিসিআর ও অনলাইন মিউটেটেড খতিয়ান তুলে দেন। এর আগের দিন গত সোমবার বিকেলে কাজিপুর উপজেলা ভূমি অফিস পরিদর্শন করেন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ। তিনি জানান, এই অফিসের সেবাগুলো এখন অনলাইনে সম্পন্ন হচ্ছে। আজকে তারই ধারাবাহিকতায় আমি অনলাইনে খাজনা প্রদানকারী একজন সেবাগ্রহিতার নিকট দাখিলা তুলে দিলাম। এ ছাড়া অনলাইনে নামজারির শুনানির সেবাটিও এখানে চালু হয়েছে। আর প্রায় পরিত্যক্ত ভূমি অফিস ভবনটিকে মূল কাঠামো ঠিক রেখে যে আদল তৈরি করা হয়েছে তা সবার জন্যে অনুকরণীয় হতে পারে।

উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা গেছে, সেবা নিতে আসা মানুষজন সপ্তাহে একদিন গণশুনানিতে তাদের সব কথা খুলে বলতে পারেন। এতে করে কোনো সমস্যা থাকলে তা চিহ্নিত করে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। কোনো হয়রানি ছাড়াই মিলছে জমির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। সেবা নিতে মানুষের ভোগান্তি কমাতে চালু হয়েছে টোকেন প্রথা ও হেল্পডেক্স। মানুষ ডেক্সে জানতে পারছে কোনো সেবা কোন রুমে পাওয়া যাবে। টোকেন নম্বর ধরে ডাকলে নির্দিষ্ট রুমে গিয়ে পাওয়া যাচ্ছে কাঙ্ক্ষিত সেবা। মূল রাস্তা থেকে ভূমি অফিসে ঢুকলেই একজন সেবা নিতে আসা মানুষ চলে আসছেন সিসি ক্যামেরার আওতায়। ফলে তৃতীয়পক্ষ বা দালালদের দৌরাত্ম শূন্যের কোঠায় চলে এসেছে।

কাজিপুর উপজেলা ভূমি অফিসের নানামুখী সেবা পেয়ে খুশি সেবা প্রত্যাশী সব শ্রেণি পেশার মানুষ। অনলাইনে নামজারির আবেদন শুনানিতে অংশ নেওয়া সাংবাদিক আবদুল জলিল জানান, আমার জানামতে উপজেলা পর্যায়ে এই সেবাটি দেশের কোথাও চালু হয়নি। ঘরে বসেই আমি জুম অ্যাপের মাধ্যমে শুনানিতে অংশ নিলাম। খুবই ভালো লাগছে।

কাজিপুরের ডক্টর হাসনা হেনা দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা কামাল হোসেন জানান, মাদরাসার অনলাইন দাখিলা পেলাম। এতদিন ভূমি অফিস সম্পর্কে যে ভুল খবর পেতাম আজ সে ভুল ভাঙল।

বর্তমান ইউএনও জাহিদ হাসান সিদ্দিকীর পরামর্শ ও দিক নির্দেশনায় কাজিপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ বি এম আরিফুল ইসলাম এই কাজটি করেছেন। এখানে যোগদানের পর থেকে তিনি অনেক চেষ্টায় এডিসি রেভিনিউ ও ডিসি মহোদয়ের উৎসাহে সবক্ষেত্রেই অনলাইন সেবা চালু করতে সক্ষম হয়েছেন। সেবা গ্রহীতাগণ পাচ্ছেন এসএমএস ও ফোন সেবাও। আর জরাজীর্ণ অফিস ভবন এখন সবার নজর কেড়েছে।

কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, এসিল্যান্ড সাহেব অনেক কষ্ট করে অফিসটিকে নতুন মাত্রা দিয়েছেন। ডিজিটাল সেবার আওতায় এসেছে পুরো অফিস ব্যবস্থাপনা। এ কারণে ভূমি অফিসের সেবার মান পরিবেশ ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে যা বর্তমান এমপি স্যার ও ডিসি স্যারকেও মুগ্ধ করেছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ