• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সিরাজগঞ্জে জমির ভুয়া দাগ নাম্বার দেখিয়ে সেচ সংযোগ নেয়ার অভিযোগ

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে জমির ভুয়া দাগ নাম্বার দেখিয়ে সেচ সংযোগ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, বেলকুচি উপজেলার আগুরিয়া গ্রামের বুজরত আলীর ছেলে মো: ছিলিম ২০১৮ সালের ১১ নভেম্বর আগুরিয়া মৌজার জে.এল নং-১৮, দাগ নং-৯৩৭ বৈধ জমি দেখিয়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে সেচ সংযোগের জন্য আবেদন করেন। এই আবেদনের প্রেক্ষিতে ২০১৯ সালের ১০ জানুয়ারী বিএডিসি অফিস হইতে সরকারী নিয়ম অনুযায়ী মো: ছিলিম কে সংযোগ দেয়ার জন্য ছাড়পত্র প্রদান করেন।

কিন্তু একই গ্রামের আলহাজ্ব শাহজাহান ফকিরের ছেলে শহিদ ফকির একই মৌজার ভুয়া দাগ নম্বর-২৩২৪ দেখিয়া সেচ সংযোগের আবেদন করেন। বিএডিসি কর্তৃপক্ষ সরেজমিন তদন্ত করে শহিদ ফকিরের দাগ নাম্বার ভুয়া প্রমাণীত হওয়ায় তার আবেদন বাতিল করে দেন। শহিদ ফকির বেলকুচির বিভিন্ন স্থানে বলা বলি করছেন যে, পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম  (বেলকুচি) কে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দিয়ে তিনি সংযোগ নিয়েছেন।  শহিদ ফকিরের নামে ডিমান্ড নোট ২০১৮ সালের ২৭ ডিসেম্বর পল্লী বিদ্যুৎ অফিস হইতে বাতিল করা হয়েছে। যাহার স্মারক নং-৬৩৭৯, রিসিভ নং-৪৪৫৬। বিষয়টি সরেজমিন তদন্ত পূর্বক শহিদ ফকিরের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা সহ তিনি যেন সেচ সংযোগ না পান এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।
এই অভিযোগের বিষয়ে সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যু সমিতির-২ জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী সৈয়দ কামরুল হাসান বলেন, অভিযোগ পত্রটি আমি পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য একজন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দিয়েছি। এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ