• বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১১ ১৪২৮

  • || ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সিরাজগঞ্জে ৫৩৬টি মণ্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০২১  

শারদীয় দুর্গাপূজাকে ঘিরে সিরাজগঞ্জের পালপাড়াতে প্রতিমা তৈরিতে কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছেন। বেশির ভাগ প্রতিমার অবকাঠামো তৈরির কাজ শেষ। শুরু হয়েছে দেবী দুর্গার অনিন্দ্য সুন্দর রুপ দিতে রংতুলির কাজ।

অন্যদিকে জেলার পূর্জা মণ্ডপগুলোতে চলছে আলোকসজ্জার কাজ। এবার জেলার ৯টি উপজেলায় ৫৩৬টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলার সদর, কামারখন্দ, উল্লাপাড়া, শাহজাদপুর, রায়গঞ্জ, তাড়াশ, বেলকুচি, কাজিপুর, ও চৌহালীর বিভিন্ন পূজামণ্ডপে রাত-দিন কাজ করছেন প্রতিমা শিল্পীরা।  প্রতিটি পূজামণ্ডপে তৈরি হচ্ছে দুর্গা, সরস্বতী, লক্ষ্মী, গণেশ, কার্তিক, অসুর, সিংহ, হাঁস, পেঁচা, সর্পসহ বিভিন্ন প্রতিমা।

তবে অসুর নাশিনী দেবী দুর্গাকে নানা রঙে রাঙালেও প্রতিমা তৈরির উপকরণ ও রঙের দাম বেড়ে যাওয়ায় ন্যায্য পারিশ্রমিক থেকে বঞ্চিত হচ্ছে প্রতিমা তৈরির কারিগরদের। এজন্য অনেক প্রতিমা শিল্পীই হতাশ।

পঞ্জিকা মতে, আগামী মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) শুরু হয়ে ৫ দিনব্যাপী চলবে এই দুর্গোৎসব।

কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাট পালপাড়ার প্রতিমা তৈরির কারিগর (৬৬) গুপিনাথ পাল বলেন, প্রতি বছর ৩০/৩৫ সেট প্রতিমা তৈরি করে থাকি। কিন্তু এ বছর মাত্র ২৫টি প্রতিমার কাজ করছি। এখনো ১ সেট প্রতিমাও বিক্রি করতে পারিনি। 

উল্লাপাড়ার নিখিল চন্দ্র পাল, সুভাষ পাল, কার্তিক পালসহ প্রতিমা তৈরির শিল্পীরা জানান, প্রতিমা তৈরির উপকরণ মাটি, খড় ও সুতলি-রঙের দাম বেড়ে যাওয়ায় আগের মতো প্রতিমা তৈরি করে আর্থিক লাভবান হওয়া সম্ভব
হচ্ছে না। এবার মণ্ডপের সংখ্যা বাড়লেও তাদের প্রতিমাগুলোর বিক্রি কমে গেছে। 

তারা আরও জানান, সিরাজগঞ্জের তৈরি প্রতিমা বগুড়া, পাবনা, টাঙ্গাইল, জামালপুর, শেরপুরসহ বিভিন্ন জেলায় বিক্রি করা হতো। কিন্তু করোনার প্রভাবে তারা এই অর্ডারগুলো থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সন্তোষ কুমার কানু বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজাকে বরণ করতে প্রায় সব ধরণের প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। করোনাভাইরাসের কারণে গত বছরের মতো এবারও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা করতে হবে।সব মিলিয়ে আমাদের এবারের পূজা আনন্দঘন ও জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে শেষ হবে বলে আশাবাদি।

সিরাজগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম (বিপিএম) জানান, দুর্গাপূজায় যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়ানোর জন্য সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। প্রতি বছরের মতো এবারও আনন্দমুখর পরিবেশে শারদীয় দুর্গোপূজা অনুষ্টিত হবে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ