সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১

যে কারণে ভেঙে গেল মালাইকা-অর্জুনের ৬ বছরের সম্পর্ক

যে কারণে ভেঙে গেল মালাইকা-অর্জুনের ৬ বছরের সম্পর্ক

সংগৃহীত

বলিউডের চর্চিত জুটির একটি অর্জুন কাপুর এবং মালাইকা আরোরা। তাদের সম্পর্ক নিয়ে নেটিজেনদের সমালোচনা চলতেই থাকে। বয়সের পার্থক্যের কারণেই তাদের সম্পর্ক ভিন্নভাবে দেখে দর্শকরা। মালাইকা অর্জুনের থেকে ১২ বছরের বড়। তবুও তাদের সম্পর্ক কেটে গেছে ৬ বছর। তবে সম্পর্কে এসেছে পরিবর্তন। মালাইকার প্রাক্তন স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যেই জানা গেল, প্রেম ভেঙেছে তাদের।

সংবাদমাধ্যম পিঙ্কভিলার প্রতিবেদন বলছে, পারস্পরিক বোঝাপড়ার মাধ্যমেই নিজেদের সম্পর্ক ভাঙার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। সে কারণেই বিচ্ছেদ নিয়ে কোনোভাবেই প্রকাশ্যে মুখ খুলবেন না দুজনের কেউ। নিজেদের পথ আলাদা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দুজনে, এ ব্যাপারে সম্মানের সঙ্গে নীরবতা বজায় রাখতে চান তারা। তাদের সম্পর্কের বয়স প্রায় ছয় বছর। আরবাজ খানের সঙ্গে দাম্পত্যে ইতি টানতে না টানতেই ১২ বছরের ছোট অর্জুন কাপুরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে যান মালাইকা আরোরা। বয়সের ফারাক, মালাইকার ডিভোর্সি স্ট্যাটাস কিছুই বাঁধ সাধেনি এই জুটির প্রেম কাহানিতে। গড়গড়িয়ে এগিয়েছে তাদের সম্পর্কের চাকা। কিন্তু হঠাৎ করেই নাকি তাদের ছন্দপতন।

গত বছরের মাঝামাঝি সময়েও বলিপাড়ায় অর্জুন-মালাইকা বিচ্ছেদের গুঞ্জন মাথাচাড়া দিয়েছিল। শোনা যায়, ডিভোর্সি, এক সন্তানের মা মালাইকাকে নিজের বউমা করতে মোটেই রাজি নন বনি কাপুর।

গতবছর আগস্ট মাসে যখন দুজনের ব্রেকআপ জল্পনা তুঙ্গে, একসঙ্গে লাঞ্চ ডেটে গিয়ে সব জল্পনায় জল ঢেলেছিল তারা। ওদিকে কফি উইথ করণের মঞ্চে মালাইকাকে বিয়ের ব্যাপারে খোলাখুলি কথা বলতে রাজি হননি অর্জুন। তাকে বলতে শোনা গেছে, আমি এই অনুষ্ঠানে আসতে ভীষণ পছন্দ করি, কারণ এখানে এসে মন খুলে সৎভাবে কথা বলা যায়। তবে আমার বিয়ের বিষয়টা জীবনের এমন একটা অংশ, সেটা নিয়ে হুট করে কিছু বলা যায় না। তাছাড়া সম্পর্কটা তো দুজন মানুষের।

এখন মালাইকার বয়স ৫০, অর্জুনের ৩৮। বয়সের ফারাক নিয়ে লাগাতার ট্রোলের মুখোমুখি হন তারা। তবে সেই ট্রোলিংকে তারা কখনোই পাত্তা দেননি। তাহলে হঠাৎ কেন এই সিদ্ধান্ত, কেন সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলছেন না অর্জুন ও মালাইকা।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ: