• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

হাড়ের ক্ষতি করে যে ৫ খাবার

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০২২  

সুস্থতার জন্য হাড়ের যত্ন নেওয়া জরুরি। ভাবছেন, শরীরের ভেতরে থাকে যে হাড়, তার যত্ন নেবেন কীভাবে? আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে, কোন খাবারগুলো হাড়ের জন্য ক্ষতিকর আর কোনগুলো উপকারী। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে হাড় নাজুক হতে শুরু করে। আপনি যদি আগে থেকে সচেতন থাকেন তাহলে এটি ঠেকানো সম্ভব। 

আমরা প্রতিদিন এমন কিছু খাবার খাই যেগুলো হাড়ের জন্য খারাপ। দুর্বল হাড়ের প্রাথমিক লক্ষণ হলো মাড়ির রোগ, হাতের মুঠোতে শক্তি কম পাওয়া, নখ ভঙ্গুর হয়ে যাওয়া, শরীর বেঁকে যাওয়া, ঘাড়ে ব্যথা ইত্যাদি। হাড় দুর্বল হলে অনেক সময় অল্প আঘাতেই তা ভেঙে যায়।

হাড় কীভাবে শক্তি পায়?

হাড়ের জন্য সবচেয়ে প্রয়োজনীয় উপাদানের একটি হলো ক্যালসিয়াম। আমাদের শরীর ক্যালসিয়াম নামক খনিজ সহজে গ্রহণ করতে পারে না। কিছু খাবার শরীরে ক্যালসিয়াম গ্রহণে বাঁধা দেয়। যে কারণে এই খনিজ শরীরে পৌঁছে না। তাই ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার পাশাপাশি ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, ভিটামিন এ, সি, ডি যুক্ত খাবার খেতে হবে। এছাড়া প্রতিদিন কমপক্ষে আধা ঘণ্টা শরীরচর্চা করতে হবে। এতে হাড় ভালো রাখা সহজ হবে। জেনে নিন কোন খাবারগুলো হাড়ের জন্য ক্ষতিকর-

কোল্ড ড্রিংকস

এমনিতেও কোল্ড ড্রিংকস বা কোমল পানীয় পানের কোনো উপকারিতা নেই, আছে অনেক ক্ষতিকর দিক। তার মধ্যে একটি হলো, এটি হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণ ক্ষতিকর। এই পানীয়তে চিনির পরিমাণ থাকে অনেক বেশি। এছাড়া এতে ক্যাফেইন, ফসফোরিক অ্যাসিডও থাকে। এই উপাদানগুলো হাড়কে ভেতর থেকে দুর্বল করে দেয়।

প্রাণিজ প্রোটিন বেশি খাবেন না

আমাদের শরীর ভালো রাখার জন্য প্রয়োজন পড়ে প্রাণিজ প্রোটিনের। এই প্রোটিন শরীর গ্রহণ করতে পারে সহজেই। তবে এটি অতিরিক্ত গ্রহণ করলে সৃষ্টি হতে পারে সমস্যা। বিভিন্ন গবেষণায় উঠে এসেছে যে, অতিরিক্ত প্রোটিন খাওয়া মানুষেরা অস্টিওপোরোসিস সমস্যায় ভুগে থাকেন। সেখান থেকে হাড় ভঙ্গুর হয়ে যায়।

কফি

দুই এক-দুই কাপ কফি খাওয়া যেতেই পারে। তবে এর বেশি কোনোভাবেই নয়। কফি বেশি খেলে অনেক ধরনের সমস্যা তৈরি হতে পারে। এতে থাকা ক্যাফেইন ক্যালসিয়াম গ্রহণে বাধা দেয়। কফি তাই মাঝে মাঝে খাবেন, নিয়মিত খাওয়ার অভ্যাস করবেন না। হাড় ভালো রাখতে হলে তাই এদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

ধূমপান

ধূমপান মোটেই উপকারী অভ্যাস নয়। বরং এর ক্ষতিকর দিক লেখা থাকে সিগারেটের প্যাকেটের গায়েই। ধূমপান থেকে দেখা দিতে পারে শরীরের অনেক সমস্যা। তার মধ্যে একটি হলো, এটি হাড় দুর্বল করে দেয়। ধূমপানের ফলে শরীরে ক্যালসিয়াম ঠিকভাবে পৌঁছে না। তাই ধূমপান কিংবা তামাক গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

অতিরিক্ত চিনি ও লবণ

শরীরের জন্য লবণ প্রয়োজন, তবে তার একটি নির্দিষ্ট পরিমাপ রয়েছে। অতিরিক্ত লবণ বা চিনি গ্রহণ করা অত্যন্ত ক্ষতিকর। বিশেষ করে হাড়ের ক্ষতি করতে কাজ করে এই দুই উপাদান। কারণ অতিরিক্ত চিনি ও লবণ খেলে শরীর থেকে ক্যালসিয়াম বের হযে যায়। এছাড়া মদ্যপান, সারক্ষণ শুয়ে-বসে থাকার কারণেও হাড়ে সমস্যার সৃষ্টি হয়। হাড় সুস্থ রাখতে তাই এগুলো বাদ দিতে হবে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ