• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দেয়ালের ভেতরে মিলল ৭ম শতকে লুকানো ৪৪টি স্বর্ণমুদ্রা

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০২২  

ইসরায়েলে ৪৪টি খাঁটি সোনার মুদ্রার খোঁজ পাওয়া গেছে। সপ্তম শতাব্দীতে এসব স্বর্ণমুদ্রা একটি দেয়ালের মধ্যে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। ইসরায়েলের প্রত্নতাত্ত্বিকদের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রায় ১৭০ গ্রাম ওজনের উদ্ধারকৃত স্বর্ণমুদ্রাগুলোর এই মজুতটি হারমন স্ট্রীম (বানিয়াস) নামক একটি স্থাপনার দেয়ালে খুঁজে পাওয়া গেছে। এসব স্বর্ণমুদ্রা ৬৩৫ সালে মুসলিমদের বিজয়ের সময় লুকিয়ে রাখা হয়েছিল বলে বিশেষজ্ঞদের অনুমান।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উদ্ধারকৃত মুদ্রাগুলোতে এই অঞ্চলে বাইজেন্টাইন সাম্রাজ্যের শাসনের শেষের দিকের বিষয়টি উঠে এসেছে। বাইজেন্টাইন সাম্রাজ্য ছিল রোমান সাম্রাজ্যের পূর্ব অর্ধেক, যা পশ্চিমাঞ্চলীয় অর্ধেক ভেঙে যাওয়ার পরও এক হাজার বছরেরও বেশি সময় ধরে টিকে ছিল।

খনন পরিচালক ইয়োভ লারের বলছেন, ‘আমরা ধরণা করছি, উদ্ধারকৃত স্বর্ণমুদ্রাগুলোর মালিক হয়তো যুদ্ধের হুমকির কারণে এগুলো লুকিয়ে রেখেছিলেন। হয়তো তিনি ভেবেছিলেন, যুদ্ধ শেষ হলে একদিন তিনি এখানে ফিরে আসবেন এবং তার লুকানো সম্পত্তি পুনরুদ্ধার করবেন। তবে এখন অতীতের দিকে তাকালে আমরা বুঝতে পারি যে- তিনি কম ভাগ্যবান ছিলেন।’

বিবিসি বলছে, সোনার মুদ্রা ছাড়াও প্রাচীন এই শহরের একটি আবাসিক কোয়ার্টারে খনন কাজ চালিয়ে ভবনের অবশিষ্টাংশ, পানির চ্যানেল ও পাইপ, ব্রোঞ্জের মুদ্রা এবং আরও অনেক কিছু উন্মোচিত হয়েছে বলে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ইসরায়েল পুরাকীর্তি কর্তৃপক্ষের মুদ্রাসংক্রান্ত (মুদ্রা) বিশেষজ্ঞ ড. গ্যাব্রিয়েলা বিজভস্কি বলেন, কিছু মুদ্রা সম্রাট ফোকাসের (৬০২-৬১০) আমলের। কিন্তু বাকি মুদ্রার বেশিরভাগই তার উত্তরসূরি হেরাক্লিয়াসের।

খ্রিস্টান ঐতিহ্যে বানিয়াসের একটি বিশেষ স্থান রয়েছে। মূলত এখানেই যীশু তার দূত পিটারকে বলেছিলেন, ‘এই পাথরের ওপর, আমি আমার গির্জা তৈরি করব’।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ