• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পাকিস্তানের ঘাঁটিতে ভারতের বিমান হামলায় নিহত ৩০০, যুদ্ধের আশংকা

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

পাকিস্তান সীমান্তের অভ্যন্তরে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদের ঘাঁটিতে ভারতীয় বিমান হামলায় আনুমানিক ২০০ থেকে ৩০০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছেন। গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদসংস্থা হিন্দুস্তানটাইমস এ খবর জানিয়েছে। তবে এ নিহতের বিষয়টি নাকোচ করেছে পাকিস্তান। 

সোমবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে ভারতীয় বিমান বাহিনী পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের বালাকত শহরে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদের বেশ কয়েকটি ঘাঁটিকে লক্ষ্য করে এ বিমান হামলা চালায়। 

১২টি মিরাজ জেট ফাইটারের মাধ্যমে চালানো এ হামলায় এক হাজার কেজিরও বেশি পরিমাণ বোমাবর্ষণ করা হয়েছে। 
গেল ১৪ ফেব্রুয়ারিতে জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা ভারতের আধা সমরিক বাহিনী ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স (সিআরপিএফ)’ এর ৪৪ সদস্যের নিহতের জবাবে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীরে এ হামলাটি চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া ট্যুডে।

দেশটির বিমানবাহিনীর একটি সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া ট্যুডে বলছে, সীমান্ত রেখার কাছে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীরে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি ও লঞ্চ প্যাডে বিমান হামলা চালানো হয়েছে।

ভারতীয় বিমান বাহিনী আকাশ সীমা লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করেছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর।

এক টুইট বার্তায় গফুর বলেছেন, মুজাফফরাবাদ সেক্টর থেকে পাকিস্তানে অনুপ্রবেশ করেছে ভারতীয় বিমান বাহিনীর যুদ্ধ বিমান। বালাকোট সেক্টরে বোমা ফেলেছে। তবে ভারতের এই হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করেছেন তিনি।

কাশ্মীরে ভারতের এই হামলা প্রায় ২১ মিনিট ধরে চলমান ছিল। এতে সন্ত্রাসীদের আস্তানা ধ্বংস হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। মুজাফফরাবাদ থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরের তালেবান অধ্যুষিত খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের বালাকোট সেক্টরেও হামলা হয়েছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ