শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

বৃষ্টির কবলে বাংলাদেশের ম্যাচ পরিত্যক্ত

বৃষ্টির কবলে বাংলাদেশের ম্যাচ পরিত্যক্ত

সংগৃহীত

সকাল থেকেই ঢাকা শহর বৃষ্টির কবলে। ঘূর্ণিঝড় মিগজিউমের প্রভাব ছিল আগে থেকেই। তবে মেঘাচ্ছন্ন আকাশ থাকলে ঢাকায় বৃষ্টি খুব একটা দেখা যায়নি। অন্তত মিরপুরের শের-এ বাংলা স্টেডিয়ামে বৃষ্টি আসেনি। অন্ধকার দিনে তাই ফ্লাডলাইটের আলোতে পার হয়েছে ঢাকা টেস্টের প্রথম দিন। তাতে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি দুই দলের কেউই। 

কিন্তু দ্বিতীয় দিনের শুরুতে ঢাকায় দেখা গিয়েছে বৃষ্টিপাত। শের-এ বাংলা স্টেডিয়াম এখন কাভারে ঢাকা। ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হতে কিছুটা দেরি হচ্ছে, সেটা একপ্রকার নিশ্চিত। তবে ঠিক কখন থেকে খেলা শুরু হবে, সেটার জন্য চোখ রাখতে হবে আবহাওয়ার দিকে। 

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, ঢাকাসহ দেশের ১৭টি অঞ্চলের ওপর দিয়ে  পূর্ব/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের প্রভাবেই এমন বৃষ্টি বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। 

এমনকি এই বৃষ্টির রেশ আগামীকাল শুক্রবার পর্যন্তও থাকতে পারে বলে জানা গিয়েছে। তবে এই মুহূর্তে বৃষ্টি না থাকলেও ভেজা আউটফিল্ডের কারণ খেলা পিছিয়ে দিয়েছেন দুই আম্পায়ার। মাঠ উপযোগী হতে হতে আরও একবার বৃষ্টি হানা দেয় কিনা সেটাই দেখার বিষয়।

তবে বৃষ্টি হলে আরও কিছুটা সুবিধা এই মুহূর্তে পাবে বাংলাদেশ। মিরপুরের স্পিনিং উইকেটে এরইমাঝে সুবিধা পেতে শুরু করেছে বাংলাদেশ। নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৭২ রানে গুটিয়ে গেলেও কিউইদের টপঅর্ডার ধ্বসিয়ে দিতেও সময় নেয়নি বাংলাদেশের স্পিনাররা। গতকাল শেষবিকেলে ৫৫ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে নিউজিল্যান্ড। সে হিসেবে প্রথম দিনেই ঢাকা টেস্ট দেখেছে ১৫ উইকেটের পতন। বৃষ্টির পর ভারী মাঠের সুবিধা আরও ভালোভাবে নিশ্চয়ই পাবে বাংলাদেশ। 

এর আগে অবশ্য দ্বিতীয় দিনের খেলা কিছুটা আগে শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন আম্পায়াররা। প্রথমদিনে দু’দল সবমিলিয়ে ৭৯ ওভার খেলেছে, যা পুষিয়ে নিতে আজ খেলা ১৫ মিনিট আগে শুরু করা কথা ছিল। সিরিজ শুরুর আগেই সময় নির্ধারিত করা হয় সকাল সাড়ে ৯টা। তবে ম্যাচ অফিশিয়ালরা আগামীকাল দ্বিতীয় দিনের খেলা সোয়া ৯টায় শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তবে বৃষ্টির কারণে হচ্ছেনা সেটাও। 

সূত্র: DHAKA POST