• বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৯

  • || ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩

দ্বীপ দখলের গল্প

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৬ জানুয়ারি ২০২২  

ছেঁড়াদিয়া বঙ্গোপসাগরের বিচ্ছিন্ন এক দ্বীপ। এই প্রান্তরের দখল যার হাতে তারই কেল্লাফতে। দ্বীপটি চিংড়ি আর লবণের বাণিজ্য কেন্দ্র।

টাকা আর জমি দখলের কারবার যেখানে, সেখানে প্রভাব বিস্তারের রাজনীতি থাকবেই। টক্কর চলে দুই পরিবারের মধ্যে। বংশ পরম্পরায় সেই পরিবারের যে হাল ধরে তার নাম হয়, কোম্পানি। আর কোম্পানিদের প্রভাব বজায় রাখে ‘বলি’। দ্বীপে আবিষ্কার হয় মৃতপ্রায় এক যুবকের দেহ। তারপর তাকে ঘিরে শুরু গল্পের প্রবাহ। ছেঁড়াদিয়ায় নেই কোনো আইনের শাসন কিংবা সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ। বন্দুকের নল থেকেই বের হয় ক্ষমতা, সেই ক্ষমতার টক্করে কে বাঁচে আর কে মরে—সেই তথ্য নিয়েই বলি ওয়েব সিরিজের কাহিনি আবর্তিত হয়েছে। তারপর একের পর এক টুইস্ট দিয়ে গল্প এগিয়ে যায়।

ভারতের জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘হইচই’ তাদের পঞ্চম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বাংলাদেশ থেকে ৫টি অরিজিনাল সিরিজ নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিল। এই ৫টির মধ্যে একটি হলো ‘বলি’ একটি। প্রাচীন এক লোককাহিনির ছায়া অবলম্বনে নির্মিত অ্যাকশন-থ্রিলার ঘরানার ‘বলি’ সিরিজের জিন্দালাশ, উজান-ভাটা, ঊনো বর্ষায় দুনো শীত, রাখে খোদা মারে কে, জোড়া প্রাণ, আশেকান, মনের বাঘ, বনের বাঘ, জানুফাটা সময়— সাত পর্বে সাতটি নামের কাহিনি বর্ণিত হয়েছে।

এই সিরিজে সোহরাবের ভূমিকায় থাকছেন চঞ্চল চৌধুরী এবং রুস্তমের ভূমিকায় সোহেল মন্ডল। সোহরাব নামের সেই চরিত্রে রয়েছে খারাপ মানুষের গন্ধ। চঞ্চল চৌধুরীর অভিনয়, সংলাপ ডেলিভারি, একশন সিন, এক্সপ্রেশন সবকিছু দর্শককে মুগ্ধ করবে। বলা যায়, এতে একেবারে ভিন্ন চরিত্রে হাজির হয়েছেন দুজনে।

‘বলি’র সব আলো কেড়ে নিয়েছেন শাহজাহান বলি, অর্থাত্ নাসির উদ্দিন খান। তার অভিনয় মুগ্ধতার সৃষ্টি করে। গোঁফসহ পোড় খাওয়া চেহারায় পলাশের লুক ও চরিত্রটি আগ্রহের শীর্ষে দর্শকের। ইরেশ যাকেরের অভিনয়ও বেশ ভালো হয়েছে। চরিত্রটিকে তিনি সাবলীলভাবেই ফুটিয়ে তুলতে পেরেছেন। সালাউদ্দিন লাভলু তার জায়গায় খুব ভালো ভাবে বসে গিয়েছেন। সোহানা সাবা এবং সাফা কবীর তাদের সাথে পাল্লা দিয়ে ভালোই অভিনয় করেছেন। এককথায়, সবার অভিনয়ই মনোমুগ্ধকর।

ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক ছিল অসাধারণ। থিম গেয়েছেন শিরোনামহীন ব্যান্ডের আগের ভোকালিষ্ট তানজির চৌধুরী তুহিন। সিরিজটির প্রেজেন্টেশনও আকর্ষণীয়। সবশেষ কথা হলো, ছেঁড়াদিয়ার সিংহাসন কার দখলে আসবে তা জানতে হলে ‘বলি’ সিরিজটি আপনাকে দেখতেই হবে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ