• বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৪

প্রধানমন্ত্রীকে ‘ধন্যবাদ’ জানিয়ে ৬.১৫ কিমি. দীর্ঘ ব্যানার

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৯ জুন ২০২২  

পদ্মা সেতু নির্মাণের গৌরব আর আত্মমর্যাদার প্রতীক ও সাহসিকতার পরিচয় দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘ধন্যবাদ’ জানিয়ে শরীয়তপুরের জাজিরায় ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার ডিজিটাল ব্যানার টানানো হয়েছে।  পদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্যের সমান এ ব্যানার শরীয়তপুর-ঢাকা অঞ্চলিক সড়কে পদ্মা সেতুর নাওডোবা প্রান্ত থেকে বিকেনগর পর্যন্ত টানানো হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও জাজিরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদারের উদ্যোগে মঙ্গলবার সকালের দিকে এ ব্যানার টাঙানো হয়েছে। 

জাজিরায় পদ্মা সেতুর নাওডোবা প্রান্ত থেকে ব্যানার টানানো শুরু হয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিকেনগর পর্যন্ত গিয়ে এ ব্যানার শেষ হয়। সড়কের পাশে বাঁশের খুঁটি দিয়ে ব্যানার টানানোর ব্যবস্থা করা হয়।

সরেজমিন দেখা গেছে, ব্যানারজুড়ে পদ্মা সেতুর ছবি দেওয়া হয়েছে। তার সঙ্গে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়, শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জাজিরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদারের ছবি দেওয়া হয়েছে। 

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার ব্যানারের বিভিন্ন স্থানে ‘আত্মমর্যাদা, সাহস ও এগিয়ে যাওয়ার নাম পদ্মা সেতু, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ’, ‘গৌরবের ও সক্ষমতার প্রতীক পদ্মা সেতু’ এমন নানা স্লোগান লেখা হয়েছে।

জাজিরার সাহেববাজার এলাকায় ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান খান (৫৬), আবদুল হাকিম বেপারী (৪০) বলেন, শেখ হাসিনা সাহস দেখিয়ে পদ্মা সেতু করেছেন। তার মতো লাখো গরিবের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন।

জাজিরার ব্যবসায়ী ছায়েদ বেপারী বলেন, পদ্মা সেতু বানাতে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাকে অনেক মানসিক চাপ সহ্য করতে হয়েছে। দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে হয়েছে। তিনি সেতু নির্মাণ করে অবহেলিত জনপদ উন্নত করেছেন। 

জাজিরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদার সাংবাদিদের  বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক বড় উপহার পদ্মা সেতু নির্মাণ করে দিয়েছেন। তার প্রতি কৃতজ্ঞ। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ও ধন্যবাদ জানাতে জাজিরার মানুষ পদ্মা সেতুর সমান ছবি দিয়ে ব্যানার তৈরি করেছেন।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ