• বৃহস্পতিবার   ৩০ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৬ ১৪২৯

  • || ৩০ জ্বিলকদ ১৪৪৩

কঠোর নিরাপত্তা বলয়ে উদ্বোধন হবে পদ্মা সেতু

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৩ জুন ২০২২  

স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের তারিখ ঠিক হওয়ার পরপরই সারাদেশে বইছে আনন্দের জোয়ার। সেতুর দুই প্রান্তেই তৈরি হয়েছে মঞ্চ, সড়কে শোভা পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত ব্যানার ফেস্টুন। ২৫ জুন স্বপ্নের এই সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানকে ঘিরে নাশকতা, হামলা বা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিষয়ে কোন তথ্য না থাকলেও পদ্মার দুই পাড়েই রয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা বলয়। 

বুধবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বেলা ১২টার দিকে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে ঘিরে শেষ মুহূর্তের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন র‍্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন। র‍্যাবের এই মহড়াকে ঘিরে পদ্মা পাড়ের দুই প্রান্তের কিছু মানুষের মনে কৌতূহল দেখা গেছে। তবে আবার র‍্যাবের এই মহড়াটিকে দেখার জন্য উৎসুক জনতার উপস্থিতিও ছিল চোখের পড়ার মত।  

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) বহরটি মাওয়া প্রান্তে ও জাজিরা প্রান্তে প্রায় দুই ঘণ্টা পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর  জনসভাস্থলসহ বেশ কিছু স্থান পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গোয়েন্দা তথ্য ও সাইবার মনিটরিংসহ অন্যান্য মাধ্যমে নাশকতার তথ্য না থাকলেও র‌্যাব সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে ঘিরে সেতুর দুই প্রান্তে র‍্যাবের স্পেশাল কমান্ড টিমের  পাশাপাশি র‍্যাবের হেলিকপ্টারও প্রস্তুত থাকার কথাও জানান তিনি। 

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাস্থলের আশপাশ এলাকাগুলোতে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এসব এলাকাগুলোতেও পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আগ মুহূর্তে জনসাধারণের প্রবেশে দেওয়া হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

সেতু উদ্বোধনের দিন মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তের যে সকল হোটেল ও রেস্তরাঁ রয়েছে তাদের জন্য জারি করা হয়েছে কিছু বিধিনিষেধ। এছাড়া ২৫ তারিখ সারাদিন লঞ্চ, ট্রলার, স্পিড বোর্ড চলার ব্যাপারেও বেশ কিছু নির্দেশনা থাকবে বলে জানা গেছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান চলাকালে সার্বিক নিরাপত্তার জন্য র‍্যাবের কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। 

এছাড়া স্ট্রাইকিং ফোর্স, মোটরসাইকেল পেট্রোল, বোট পেট্রোল, অবজারভেশন ফোর্স এবং সেতুর দুই প্রান্তসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে র‍্যাবের  বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট সারাদিন নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত থাকবে। আর এই বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকবে বলে জানিয়েছেন র‍্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন।

সেতু উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে পদ্মা সেতুর সার্ভিস এরিয়া ১ এবং সার্ভিস এরিয়া ২ এ পোশাকধারী সদস্যদের পাশাপাশি র‍্যাবের গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যদের সমাবেশস্থল, টোল প্লাজা, ফলক উন্মোচনসহ আশপাশের এলাকাতে এখন থেকেই টহল দিতে দেখা গেছে। 

সেতু উদ্বোধনের দিন সমাবেশস্থলে যারা প্রবেশ করবেন তাদের জন্যও রয়েছে বেশ কিছু বিধিনিষেধ। তবে হাজারো বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে ঘিরে দুইপাড়ের মানুষের মনে বইছে খুশির জোয়ার।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ