• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সরকারের পদক্ষেপকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে টিআইবি!

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সারা দেশের সড়ক ও মহাসড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানকে প্রধান করে ১৫ সদস্যবিশিষ্ট ‘সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণ কমিটি’ গঠন করেছে সরকার। সরকারের এই পদক্ষেপ যখন দেশের সব মহলে প্রশংসিত হচ্ছে, তখন কিছু কুচক্রী ও রাষ্ট্রবিরোধী মহলের প্ররোচনায় পড়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) মিথ্যাচার ও গুজব ছড়াচ্ছে।

সমস্যা সমাধানে সরকারের গৃহীত তড়িৎ পদক্ষেপগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করে দেশি ও আন্তর্জাতিক মহলে রাষ্ট্র ও সরকারকে হেয় প্রতিপন্ন করতে অর্থের বিনিময়ে মনগড়া ও ভিত্তিহীন মন্তব্য করে বিএনপি-জামায়াতের মুখপাত্রের ভূমিকা পালন করছে টিআইবি বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. মেজবাহ কামাল।

সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণ ও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার পদক্ষেপ বিষয়ে টিআইবি’র মন্তব্যকে মিথ্যা প্রোপাগান্ডা হিসেবে দাবি করে রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. মেজবাহ কামাল বলেন, সড়কে মৃত্যু ও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সরকার তড়িৎ পদক্ষেপ গ্রহণ করে যে কমিটি গঠন করেছে তা প্রশংসার দাবিদার। দেশের চলমান উন্নয়নে ঈর্ষান্বিত হয়ে শাজাহান খানকে নিয়ে মিথ্যাচার ছড়াচ্ছে টিআইবি। শাজাহান খান যেহেতু জন নন্দিত শ্রমিক নেতা, তাই তাকে ব্যবহার করে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা সম্ভব ভেবে সরকার তাকে কমিটির প্রধান করেছে।

তিনি আরো বলেন, টিআইবি প্রতিবারই সরকারকে বিব্রত করার মিশনে তৎপর থাকে। আমার মনে হয়, বিএনপি-জামায়াতের মদদ পুষ্ট হয়ে এবং বিদেশি কিছু সংস্থার সরাসরি পৃষ্ঠপোষকতায় টিআইবি মনগড়া মন্তব্য করে দেশের রাজনীতিতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। দেশের রাজনীতিতে পরাজিত শক্তিরা টিআইবি’র মতো গবেষণা প্রতিষ্ঠানের নামে নিজেদের প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার চেষ্টা করছে। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, তাদের এই অপচেষ্টা সফল হবে না।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ