• মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৮ ১৪২৯

  • || ১০ রজব ১৪৪৪

চায়না লেবু চাষে বুলবুলের চমক, ৪ লাখ টাকা লাভের আশা!

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২২  

নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার সিংগা গ্রামের বুলবুল আহমদ চায়না লেবু চাষ করে সফলতা অর্জন করেছেন। এই উপজেলার মাটি অত্যন্ত উর্বর হওয়ায় লেবুর ব্যাপক ফলন হয়েছে। লেবু চাষের পাশাপাশি জমিতে ধান, গরুর খামার, গরুর খাবারের জন্য ঘাস চাষ করছেন। তার সফলতা দেখে অনেকেই লেবু চাষে উৎসাহিত হচ্ছেন।

জানা যায়, বুলবুল আহমেদ নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর ছিলেন। জনপ্রতিনিধি হয়ে এলাকার মানুষের সেবা করেছেন তিনি। গত নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর চায়না লেবু চাষ শুরু করেন। লেবু চাষের পাশাপাশি জমিতে ধান, গরুর খামার, গরুর খাবারের জন্য ঘাস চাষ করছেন তিনি। তার কৃষি কাজের প্রতি মনোনিবেশ ও সফলতা দেখে অনেকেই কৃষি কাজে উৎসাহি হচ্ছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, উঁচু জমিতে সারিবদ্ধভাবে লেবুগাছ লাগিয়েছেন। জমির চারপাশে জাল দিয়ে ঘেরা রয়েছে। খেতের পাশ দিয়ে বিভিন্ন ধরনের ফলের গাছ লাগানো হয়েছে। বুলবুল নিজেসহ কিষানিরা জমির আগাছা পরিষ্কার ও পরিচর্যা করছেন।

লেবুচাষি বুলবুল বলেন, কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী আমার প্রায় ৪০ শতক জমিতে চায়না লেবুর চাষ করেছি। প্রায় তিন শতাধিক লেবুগাছে এবছর প্রচুর ফল এসেছে। এক দিন পরপর ১ থেকে দেড় হাজার লেবু তুলে লোহাগড়া বাজারে ৩-৪ হাজার টাকায় বিক্রি করি। এতে মাসে ৫০-৬০ হাজার টাকার লেবু বিক্রি করতে পারি। আশা করছি এ বছর লেবু বিক্রি করে খরচ বাদে প্রায় ৪ লাখ টাকা লাভ হবে।

উপজেলা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন বলেন, এই উপজেলার মাটি লেবু চাষের জন্য অত্যন্ত উর্বর। চায়না লেবুতে রস বেশি হয়। এই গাছে পোকামাকড়ের উপদ্রব কম। কম সময়ে বেশি ফলন পাওয়া যায়। আর গাছ যত বড় হবে, গাছে ততবেশি লেবু ধরবে।

লোহাগড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইমরান হোসেন বলেন, আমরা নিয়মিত বুলবুলের বাগানটি পরিদর্শন করি। তিনি কৃষি বিভাগের পরামর্শ নিয়ে বাগান করে সফলতা অর্জন করেছেন। আমরা তাকে আরো প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে সহযোগিত করবো।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ