• বৃহস্পতিবার   ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৭ ১৪২৯

  • || ১৮ রজব ১৪৪৪

এনায়েতপুরে অবৈধভাবে ওরশ মেলা চালু !

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৯ জানুয়ারি ২০১৯  

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার তাঁতশিল্প সমৃদ্ধ এনায়েতপুরে বার্ষিক ওরশ শরীফ উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও উত্তরবঙ্গের বৃহৎ মেলার আয়োজন করা হয়।

১০দিনের মেয়াদে পাউবোর বেরিবাঁধে আয়োজিত ওই মেলার শেষ হবার কথা ছিল গত ২০ জানুয়ারী। ব্যবসায়ীদের চাপে ও আয়োজকদের স্বার্থে মেলার মেয়াদ ৩ দিন বাড়ানো হলেও তা পূর্নোদ্দমেই এখনও চলছে। মেলা কমিটির লোকজন এরই মধ্যে লোকদেখানো মেলা বন্ধের ঘোষনাও দিয়েছেন। স্থানীয় একটি দুষ্ট চক্রের মাধ্যমে মেলা কমিটির কতিপয় অসাধু লোকজন নিজেদের স্বার্থে বন্ধ ওই মেলা গায়ের জোরে সোমবার (২৮ জানুয়ারী) বিকেল পর্যন্তও চালু রেখেছেন। প্রতিদিন মেলায় অর্ধকোটি টাকা মুল্যে দেশী-বিদেশী আসবাবপত্র, কম্বল, কাঠের ফার্নিচারসহ বিভিন্ন পন্য কেনাবেচা হচ্ছে। এছাড়া এখনও মেলার প্রায় সাড়ে তিন’শ দোকানির নিকট থেকে বিদ্যুৎ বিল-১১০ টাকা, পাহাড়া বিল-১০০টাকা ও মেলার চাঁদা ১০০টাকা করে আদায় করছে। কমিটির নিয়োগকৃত লোকদের দিয়ে প্রতিদিন গড়ে লক্ষাধিক টাকা তোলা হচ্ছে বলে দোকানিরা জানিয়েছেন।  
এদিকে, আগামী ২ ফেব্রুয়ারী এস.এস.সি পাবলিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। গভীর রাত পর্যন্ত চোখ ধাঁধাঁনো গ্রামীন মেলায় পসরাকৃত প্রয়োজনীয় ও সৌখিন মালামাল, ফার্নিচার, আসবাবপত্রের প্রদশর্নী/বেচাকেনা এবং নারী-পুরুষের উপচে পড়া ভীড় রয়েছে। উৎসুক ও উঠতি বয়সের এসএসসির পরীক্ষার্থীরা সেখানে প্রতিদিন ভীড় করায় তাদের পড়াশনারও বিঘœ ঘটছে। আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় ফলাফল বিপর্যয়ের আশঙ্কায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তাদের নিজ নিজ অভিভাবকগন। পাবলিক পরীক্ষার আগে জরুরী ভিত্তিতে ওই অবৈধ মেলা বন্ধের জন্য প্রশাসনের নিকট দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় অভিভাবকগন। এদিকে, সোমবার সকালে মেলার চুরিমালা দোকানি আবদুর রহিমের (৩২) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মেলার অদুরে যমুনা চর থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় এনায়েতপুর থানায় অপমৃত্যুর মামলাও হয়েছে। মেয়াদ উত্তীর্ণ মেলার নতুন দাপুটে আয়োজক আশরাফ আলী স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের নিকট দাবি করেন, দোকানিদের চাপে মেলার মেয়াদ বাড়ানো হলেও তার সুফল সবাই ভোগ করছেন। অনুমোদিত মেলা কমিটির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে সাংবাদিকদের বলেন, নির্ধারিত সময়ে মেলা সমাপ্ত করার পর ঠিক কে বা কারা চালাচ্ছে, তা আমরা অবগত নই। এর দায়-দায়িত্ব আমাদের অনুমোদিত কমিটির নেই। এখন কারা চালাচ্ছেন এটা আপনারা (সাংবাদিকরা) দেখেন। চৌহালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানওয়ার হোসনের নিকট অবৈধ ভাবে পরিচালিত মেলার বিষয়ে বারবার বলা হলেও তিনি কোন ব্যাবস্থা নেননি। এনায়েতপুর থানার ওসি মাহবুবুল আলম বলেন, মেলা বন্ধ ঘোষনা দেয়ায় বেশীর ভাগই দোকান উঠে গেছে। কিছু কিছু হয়তো রয়েছে। আগামী দু’একদিনের মধ্যে হয়তো চলে যাবে। চুরিমালা দোকানি আবদুর রহিম মৃগী রোগে মারা গেছেন বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। তারপরেও লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদরের হাসপাতালে পাঠিয়েছি। 
এবিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফিরোজ মাহমুদ বলেন, পাবলিক পরীক্ষার বাকী আছে ক’দিন। এ সময়ে কোন ধরনের মেলা পরিচালনা করাটাই সম্পূর্ন অবৈধ। এনায়েতপুরে মেলার বিষয়টি আমি অবগত নই। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে খোঁজ-খবর নিয়ে বিষয়টি দেখবেন বলেও জানান তিনি। 

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ