• মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১২ ১৪২৭

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

১৯৪

হাসঁ পালনে বেকারত্ব ঘুচাতে আলোর পথ দেখাচ্ছে বেলকুচির নাজমুল

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২০  

বাংলাদেশে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা প্রায় দেড় কোটি। করোনার মহামারীর কারনে বেকার হতে চলেছে আরও কয়েক কোটি মানুষ। পেটের তাগিদে যে শহরকে আগলে ধরা সেই শহর ছেড়ে চলে আসছে চাকুরিচ্যুতের কারনে।

অনেকটা দূর্বিষহ জীবনযাপন করছেন চাকরি হারা মানুষগুলো। সমাজের হাজার কথা উপেক্ষা করে এই সময়ে হাঁস পালন করে সফলতার বার্তা ছড়াচ্ছে বেলকুচি উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের কদমতলী গ্রামের বাসিন্দা মোঃ নাজমুল হোসেন (২৫) ।

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি তাতঁ সমৃদ্ধ এলাকা। উপজেলা চরাঞ্চল সমৃদ্ধ এলাকা উপজেলাটি তাঁতের জন্য ও বিখ্যাত কিন্তু তাঁতশিল্পে অনেকটা স্থবিরতা নেমে এসেছে করোনার জন্য । অনেকে হয়েছে কর্মহারা হলেও ব্যতিক্রমী নাজমুল হোসেন ।

প্রাথমিকভাবে তিনি পারিবারিক ভাবে ২০০ হাঁস নিয়ে খামার শুরু করেন তারপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি । হাঁস পালনে তুলনামূলক খরচ কম এখন যেহেতু বর্ষা মৌসুম সেহেতু হাঁস পালনে সেরকম কোনো সমস্যা নেই ।

বরং ২/৩ মাসের মধ্যে হাঁস ডিম দেওয়ার উপযোগী হয়ে ওঠে । নাজমুল হোসেনের খামারে এখন হাঁসের সংখ্যা ২০০০ । গ্রামে নাজমুল হোসেন কে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে অনেকে হাঁস পালনে উৎসাহিত হচ্ছে ।

এ বিষয়ে নাজমুল হোসেন বলেন, হাঁস পালন করে যুবকরা অর্থনৈতিক ভাবে স্বচ্ছল হতে পারে । এর জন্য দৃঢ় মনোবল ও পরিশ্রম করতে হবে । তিনি আরো বলেন সরকারী ভাবে সহজ শর্ত ও স্বল্প সুদে ঋণ পেলে এবং কৃষি কর্মকর্তাদের পরামর্শ পাওয়া গেলে তাঁর খামার আরো বড় করতে পারবেন ।

তিনি বাচ্চা ফুটানোর ব্যবস্থা করে অন্য আগ্রহী তরুণ উদ্যোক্তাদের মাঝে বাচ্চা সরবরাহ করতে পারবেন। আসুন বেকারমুক্ত বাংলাদেশ গড়ি।বেকারত্ব মানেই হতাশা নয় সাবলম্ভী হয়ে পরিবার ও সমাজের আশির্বাদ হই।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর