• বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

১৫

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের নামাজ আদায়

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ১ আগস্ট ২০২০  

প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সারাদেশে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা। অন্যান্য বছর ঈদের জামাত ঈদগাহে হলেও এবার অচেনা ভাইরাসটির কারণে অধিকাংশ জায়গায় মসজিদে নামাজের আয়োজন করা হয়।

করোনা সংক্রমণকে উপেক্ষা করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। আবার অনেক জায়গায় স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়নি। বিশেষ করে ঢাকার বাইরে বহু মসজিদে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে ঈদের নামাজ আদায়ের খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার সকাল থেকে কেন্দ্রীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ রাজধানীতে বিভিন্ন মসজিদ ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। এছাড়া ঢাকার বাহিরেও এমন চিত্র দেখার কথা জানিয়েছেন ঢাকাটাইমসের অনেক জেলার প্রতিনিধিরা।

সকালে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে গিয়ে দেখা যায়, মসজিদে সারিবদ্ধভাবে নিয়ম মেনে প্রবেশ করেন তারা। এছাড়া রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, রামপুরা, মগবাজার ও মতিঝিলের বিভিন্ন মসজিদে মুসল্লিদের একই নিয়মে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে নামাজ পড়তে আসা রেজা নামে একজন মুসল্লি বলেন, মসজিদ আল্লাহর ঘর। মসজিদে নামাজ পড়ে যে শান্তি পাওয়া যায়, ঘরে নামাজ পড়ে সেই শান্তি পাওয়া যায় না। তাই করোনা নিয়ে ভয় থাকলেও মসজিদে নামাজ পড়তে এসেছি। সরকারের দেয়া নির্দেশনা মেনেই মসজিদে নামাজ আদায় করা হয়েছে।

ঈদের নামাজে অংশ নিতে যারা সকালে মসজিদের ভেতরে ঢুকেছিল তারা সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নামাজ আদায় করেছেন। কিন্তু যারা ভেতরে জায়গা পাননি তারা মসজিদের বাহিরে জায়নামাজ বিছিয়ে নামাজ আদায় করেছেন। এ সময় অনেকেকে গায়ে গা ঘেঁষে নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে। সব কিছু মিলিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নামাজ আদায় করেছেন মুসল্লিরা।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে এবার ঈদের সর্বমোট ছয়টি জামাত হবে। ইতোমধ্যে তিনটি জামাত শেষ হয়েছে।

সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে চতুর্থ জামাত শুরু হয়েছে। এতে ইমামতি করছেন জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেম। মুকাব্বির হিসেবে থাকবেন জাতীয় মসজিদের চিফ খাদেম মো. শহীদুল্লাহ।

পঞ্চম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ১০টায়। এতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান। মুকাব্বির হিসেবে থাকবেন জাতীয় মসজিদের খাদেম হাফেজ মো. আব্দুল মান্নান।

এছাড়া সর্বশেষ জামাত অনুষ্ঠিত হবে বেলা ১১টা ১০ মিনিটে। এতে ইমামতি করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাবেক উপ-পরিচালক মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুর রব মিয়া। মুকাব্বির হিসেবে থাকবেন জাতীয় মসজিদের খাদেম হাফেজ মো. আব্দুর রাজ্জাক।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর