• মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৪ ১৪২৬

  • || ১৩ শা'বান ১৪৪১

৫২

শাহজাদপুরে করোনা প্রতিরোধে উপজেলা প্রশাসনের লিফলেট বিতরণ

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০২০  

শাহজাদপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় সংক্রান্ত সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেছেন শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা। বৃহস্পতিহবার বিকেলে শাহজাদপুর পৌর এলাকার দ্বারিয়াপুর বাজার, মণিরামপুর বাজার, বিসিক বাসস্ট্যান্ড, দিলরুবা বাসস্ট্যান্ড ও থানারঘাট মোড় সংলগ্ন এলাকায় জনগণের ইউএনও শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা লিফলেট বিলি করেন।

বিলি করা লিফলেটে করোনা ভাইরাস কিভাবে ছড়ায় তা উল্লেখ করা হয়েছে। যেমন- মূলত বাতাসের এয়ার ড্রপলেট এর মাধ্যমে, হাঁচি ও কাশির ফলে, আক্রান্ত ব্যক্তিকে স্পর্শ করলে, ভাইরাস আছে এমন কোন কিছু স্পর্শ করে হাত না ধুয়ে মুখে, নাকে ও চোখে লাগালে, পয়োঃনিষ্কাশন (পায়খানা) ব্যবহারের মাধ্যমেও করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে।

লিফলেটে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ হিসেবে সর্দি, কাশি, জ্বর, মাথাব্যথা, গলাব্যথা, মারাত্মক পর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া, শিশু, বৃদ্ধ ও কম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যক্তিদের নিউমোনিয়া ও ব্রঙ্কাইটিসের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

লিফলেটে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে অথবা সংক্রমন থেকে রক্ষা পেতে কি কি করণীয় তা উল্লেখ করা হয়েছে। যেমন- এখনো এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিস্কার না হওয়ায় বিস্তার রোধে প্রতিরোধের উপায় হিসেবে মাঝে মাঝে সাবান পানি বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়া, হাত না ধুয়ে মুখ, চোখ ও নাক স্পর্শ না করা, হাঁচি কাশি দেওয়ার সময় মুখ ঢেকে রাখা, ঠান্ডা বা ফ্লু আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে না মেশা, বন্য জন্তু কিম্বা গৃহপালিত পশুকে খালি হাতে স্পর্শ না করা, মাংস ডিম খুব ভালোভাবে রান্না করা, মুখে মাস্ক ব্যবহার করা যেতে পারে, প্রচুর ফলের রস ও ১৫ মিনিট পরপর পানি পান করা, হাঁচি কাশি দেওয়ার পর, রোগীকে সেবা দেয়ার পর, টয়লেট করার পর, পশুপাখি কিংবা পশুপাখির মল স্পর্শ করার পর এবং খাবার ও খাবার প্রস্তুত করার আগে ও পরে পরিস্কার করে হাত ধুতে হবে।

লিফলেটে করোনা ভাইরাস ঘরে বসে পরীক্ষা করার উপায় হিসেবে ‘ পরিচ্ছন্ন পরিবেশে লম্বা একটা শ্বাস নিয়ে সেটিকে ১০ সেকেন্ডের কিছুটা বেশী সময় আটকে রাখুন। যদি এই দম ধরে রাখার সময়ে আপনার কোন কাশি না আসে, বুকে ব্যথা বা চাপ অনুভব না হয়, মানে কোন প্রকার অসস্তি না লাগে তার মানে আপনার ফুসফুসে কোন ফাইব্রোসিস ( করোনা ভাইরাস) তৈরি হয়নি অর্থাৎ কোন ইনফেকশন হয়নি, আপনি সম্পূর্ণ ঝুঁকিমুক্ত আছেন’  উল্লেখ করা হয়েছে। 

লিফলেটে আবু দাউদ ২/৯৩, তিরমিযী ৩/১৮৪ শরীফে উল্লেখিত সকল প্রকার রোগমুক্তির দোয়াটি ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি-আউযুবিকা মিনাল বারছি ওয়ান জুনু-নি ওয়াল জুযা-মি আমিন সায়্যি ইল আসক্ব-ম’ উল্লেখ করা হয়েছে। যার অর্থ ‘হে আল্লাহ ! অবশ্যই আমি তোমার নিকট ধবল, উন্মাদ, কুষ্ঠরোগ ও সকল প্রকার কঠিন ব্যাধি থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি।’

এ বিষয়ে ইউএনও শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা বলেন, ‘করোনা ভাইরাস অন্যান্য ফ্লুবাহিত রোগের মতোই। অযথা আতংকিত না হয়ে একটু সতর্কতা অবলম্বন করলেই করোনা ভাইরাস তেমন কোন ক্ষতি করতে পারবে না। বিদেশ থেকে কেউ দেশে ফিরে এলেই এবং কেউ এ রোগে আক্রান্ত হলেই বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং শাহজাদপুর থানা পুলিশকে সঙ্গে সঙ্গে অবগত করার জন্য উদাত্ত আহব্বান জানাচ্ছি।’

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর