• রোববার   ০৫ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২১ ১৪২৭

  • || ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪১

৬১১

শামীম আরার গয়না নেই, আছে তাঁর স্বামীর

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০১৮  

ঢাকা-১১ আসনে বিএনপির প্রার্থী শামীম আরা বেগমের কোনো সোনা বা মূল্যবান কোনো অলংকার নেই। অলংকার আছে তাঁর স্বামী এম এ কাইয়ুমের। এই অলংকারের দাম ২ লাখ ৯৫ হাজার টাকা। আসন্ন জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা হলফনামা থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

শামীম আরা বেগমের আয়ের প্রধান উৎস বাড়িভাড়া। এ ছাড়া একটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান হিসেবেও বছরে ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা আয় করেন তিনি। বিএ (স্নাতক) পাস শামীম আরা নাভিদ উলওয়ারস লিমিটেডের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন। এবারই প্রথম তিনি সাংসদ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বাড্ডা, ভাটারা, রামপুরা থানা, খিলগাঁও ও সবুজবাগ থানার একাংশ নিয়ে ঢাকা-১১ আসন। এতে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সভাপতি এম এ কাইয়ুমের স্ত্রী শামীম আরা বেগম এবং উত্তরের যুগ্ম সম্পাদক এ জি এম শামসুল ইসলাম বিএনপির প্রাথমিক মনোনয়ন পেয়েছিলেন। দুজনের মধ্যে শামীম আরা বেগমের মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে দলটি।

হলফনামা অনুযায়ী, বাড়ি, অ্যাপার্টমেন্ট, দোকানভাড়া বা অন্যান্য ভাড়া বাবদ বছরে ২০ লাখ ৯৬ হাজার ৮৩২ টাকা আয় করেন শামীম আরা। আর শেয়ার, সঞ্চয়পত্র ও ব্যাংক আমানত থেকে বছরে আয় হয় ১ লাখ ৮ হাজার ৭৪৬ টাকা।

শামীম আরার হাতে নগদ আছে ২৭ লাখ ২০ হাজার ২৩৪ টাকা। স্বামীর কাছে ৩১ লাখ ৭৫ হাজার ৬৭২ টাকা ও তাঁর ওপর নির্ভরশীলদের কাছে ৪ লাখ ৬৩ হাজার ৬৩৯ টাকা আছে। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে শামীম আরার ২২ লাখ ৫২ হাজার ৭১ টাকা, তাঁর স্বামীর নামে ৭৬ লাখ ৭৭ হাজার ৬৩৮ টাকা ও নির্ভরশীলদের নামে ২ লাখ ১৭ হাজার ৮৯৬ টাকা জমা আছে।

বন্ড, ঋণপত্র, শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ খাতে বিএনপির এই প্রার্থীর আছে ৪ লাখ ২ হাজার ৮৫ টাকা। তাঁর স্বামীর নামে আছে ১৪ লাখ ২১ হাজার টাকা। শামীম আরার মোটরযান আছে ৪২ লাখ টাকার ও তাঁর স্বামীর আছে ১৫ লাখ ২০ হাজার ৬৮০ টাকার। ইলেকট্রনিক সামগ্রী ও আসবাব ছাড়াও বিএনপির এই প্রার্থীর অন্যান্য খাতে ১ কোটি ৮৭ লাখ ৩০ হাজার টাকার, তাঁর স্বামীর ৯ কোটি ১৮ লাখ ৮১ হাজার ৬১৯ টাকার এবং প্রার্থীর ওপর নির্ভরশীলদের ৪৫ লাখ টাকার সম্পদ রয়েছে।

হলফনামা অনুযায়ী, স্থাবর সম্পত্তির মধ্যে প্রার্থীর নামে ১ কোটি ৬৬ লাখ ২৭ হাজার ২৫৬ টাকার বাড়ি বা অ্যাপার্টমেন্ট আছে। আর তাঁর স্বামীর ৮০ লাখ ৯৯ হাজার ৯৩০ টাকার অকৃষিজমি ও ৪০ লাখ ৪৮ হাজার টাকার পাকা ভবন রয়েছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর