• শুক্রবার   ১০ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৬ ১৪২৭

  • || ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪১

১৭

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে সঙ্গে হার্টও সুস্থ থাকে তুলসীর গুণে!

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৭ মে ২০২০  

তুলসী একটি ওষুধি গাছ। এর হাজারো উপকারিতা রয়েছে। প্রাচীনকাল থেকেই শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার দাওয়াই হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে তুলসী।

এর ছোট ছোট সবুজ পাতাগুলো হৃদরোগ থেকে শুরু করে শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা এমনকি ত্বকের বিভিন্ন সমস্যাও সারায়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক তুলসীর কয়েকটি স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে-

> সর্দি-কাশির সমস্যায় তুলসী পাতা ম্যাজিকের মতো কাজ করে। গলার সব রকম সমস্যায় এই পাতা অত্যন্ত কার্যকরী।

> বর্তমানে হৃদরোগের সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। তুলসী পাতায় আছে ভিটামিন সি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। এই উপাদানগুলো হার্টকে সুস্থ রাখে। তুলসী পাতা হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়ায় ও এর স্বাস্থ্য ভালো রাখে।

> করোনা মহামারির এই সময় অনেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। জানেন কি? তুলসীতে থাকা ভিটামিন সি ও অন্যান্য অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমহ মুহূর্তেই মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে। এই উপাদানগুলো আমাদের নার্ভ সিস্টেমকে শান্ত করে। 

> উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগে থাকেন এমন মানুষের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। নিয়মিত ওষুধ খাওয়ার মাধ্যমে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। তবে আপনি জানেন কি? শুধু ওষুধে ভরসা নয় এক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা রাখে তুলসী পাতা। এর রস শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

> মাইগ্রেনের সমস্যায় অনেকেই ঠিকমত প্রতিদিনের কাজকর্ম পর্যন্ত করতে পারেন না! এই সমস্যা থেকে চটজলদি আরাম দেয় তুলসী। এতে থাকা বিশেষ উপাদানসমূহ মাংসপেশির খিঁচুনি রোধ করতে সহায়তা করে।

> চিরযৌবনা থাকতে কে না চায়! দ্রুত বুড়িয়ে যাওয়াকে ঠেকায় তুলসী পাতা। এতে থাকা ভিটামিন সি, ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস ও এসেন্সিয়াল অয়েল ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বয়সজনিত সমস্যা কমায়। তুলসীর চা নিয়মিত খেলে আপনি শারীরিকভাবে ফিট থাকার পাশাপাশি যৌবনকেও ধরে রাখতে পারবেন।

> এই করোনাকালে প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে বাঁচতে তুলসীর বিকল্প নেই। কারণ তুলসীর পাতা নিয়মিত খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।  

> তুলসী গাছ ওষুধি গুণে সমৃদ্ধ। তুলসীকে নার্ভের টনিক বলা হয় এবং এটা স্মরণশক্তি বাড়ানোর জন্য বেশ উপকারী। 

> তুলসীর পাতা শ্বাসনালি থেকে শ্লেষ্মাঘটিত সমস্যা দূর করে। 

> পাকস্থলী ও কিডনির স্বাস্থ্যের জন্যও অত্যন্ত উপকারী তুলসী।

> তুলসী পাতায় রয়েছে প্রোফাইল্যাক্টিভ। যা পোকামাকড় কামড়ানোর ক্ষত সারায়। পোকার কামড়ে আক্রান্ত স্থানে তুলসী পাতার তাজা রস লাগিয়ে রাখলে ব্যথা ও জ্বালা থেকে মুক্তি মেলে।

> স্বাস্থ্যের নানা সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি তুলসী ত্বকের ক্ষেত্রেও বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে। তুলসী পাতার রস ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। তুলসী পাতা বেঁটে পুরো মুখে প্যাক হিসেবে ব্যবহার করলে ত্বক সুন্দর ও মসৃণ হয়। এমনকি ব্রণের সমস্যারও সমাধান হয়। 

> ত্বকের কোনো অংশ পুড়ে গেলে তুলসীর রস এবং নারকেলের তেল ফেটিয়ে লাগালে জ্বালা কমবে এবং সেখানে কোনো দাগ থাকবে না।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর