• মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রঙ্গিন সাজে তাড়াশ শিশু পার্ক

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২০  

চলনবিলের তাড়াশ শিশু পার্ক সেজেছে রঙ্গিন সাজে। উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে মাত্র ১ কিলো মিটার দুরে তাড়াশ-ভূয়াগাতি আঞ্চলিক সড়ক ঘেষে অবস্থিত তাড়াশ পৌর শিশুপার্ক। পার্কটি এলাকার শিশু-কিশোর, শিক্ষক-চাকুরিজীবি, কৃষক-দিনমুজুরসহ সকল পেশার মানুষদের আনন্দ বিনোদনের একমাত্র কেন্দ্র। সন্ধ্যার পর এলাকায় গেলে হরেক রকমের বাতির আলোতে মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

জানা যায়, তাড়াশবাসীর তথা কোমলমোতি শিশু কিশোরদের বিনোদনের জন্য বিগত ২০১২ সালে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ রায়হান কবীরের প্রচেষ্ঠায় পরিত্যাক্ত সরকারি হাঁস-মুরগী খামারের এলাকায় প্রায় ৩ একর জায়গার উপর স্থাপন করা হয় তাড়াশ শিশু পার্ক। তবে পার্কটি স্থাপনের পরে দৃশ্যমান কোন উন্নতি হয়নি। ফলে পার্কটি গো-চারণ ভূমিতে পরিণত হয়েছিল। বিশেষ করে শিশু-কিশোরদের চিত্য বিনোদনের জন্য পার্কে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি বা কোন কিছুই স্থাপন না করায় বিনোদন থেকে বঞ্চিত ছিল তাড়াশবাসী।

চলতি বছরের এপ্রিল মাসে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পৌর প্রশাসক ইফফাত জাহানের উদ্দ্যোগে নতুন করে শিশুদের প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি এবং ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে বাজেট থেকে ৫ লক্ষ ৩১ হাজার টাকা ব্যয়ে পার্ক এলাকায় ৫০টি আলোক সজ্জা বাতি বসিয়ে পার্কটি সুসম্পন্ন এবং দৃষ্টিনন্দন করা হয়। পার্কে বেড়াতে আসা তরুণী ফাতেমা খাতুন বলেন, পার্কটি বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। আমরা প্রায়ই এখানে ঘুরতে আসি, খুব ভালো লাগে। সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি বলেন, তাড়াশে বিনোদনের তেমন স্থান নেই। পার্কটি হওয়ায় আমাদের সকলের অনেক সুবিধা হয়েছে। পরিবার-পরিজন ও বাসায় মেহমান এলে যে কোনো সময় তাদের নিয়ে ঘুরতে আসা যায়।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ