• মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

৩৪৫

মেসির ফেরাটাকে বিষাদ বানাল ভেনেজুয়েলা

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৩ মার্চ ২০১৯  

দীর্ঘ ৯ মাস পর আর্জেন্টিনার জাতীয় দলে ফিরেছেন। লিওনেল মেসি মাঠেও নামলেন অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ড পরে শুরুর একাদশে। কিন্তু তার এই ফেরাটা ফেরার মতো হলো না। তার ফেরার আনন্দকে বিষাদে পরিণত করল ভেনেজুয়েলা। মেসির ফেরার ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে দিয়েছে ৩-১ গোলে।

অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের মাঠ ওয়ান্ডা ম্যাট্রোপলিতানোর এই হার বরং একটা প্রশ্নই তুলে দিল, মেসিকে ছাড়াই তো আর্জেন্টিনা ভালো! নিন্দুকের বুলি নয়। পরিসংখ্যানই বলছে এটা। ২০১৮ বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর থেকেই সাময়িক অবসর নিয়েছিলেন মেসি। গত বছরের বাকি সময়ে তাকে ছাড়াই ৬টি ম্যাচ খেলেছে তারুণ্য নির্ভর নতুন আর্জেন্টিনা।

সেই ৬ ম্যাচের ৪টিতেই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে অ্যালবিসেলেস্তিরা। একটি ড্র হয়েছে। হেরেছে একটিতে। একমাত্র সেই হারটা চিরশত্রু ব্রাজিলের বিপক্ষে, মাত্র ১-০ গোলে। অথচ মেসিকে নিয়ে সেই আর্জেন্টিনাই তুলনামূলকভাবে সহজ প্রতিপক্ষ ভেনেজুয়েলার কাছে হারল মানল বড় ব্যবধানে।

কালকের ম্যাচটি পুরোনো সেই অভিযোগটা নতুন করে তুলে দিয়েছে। ক্লাব বার্সেলোনার জার্সি গায়ে মেসি যতটা দুর্বার, জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ততটা নয়। বার্সেলোনার হয়ে মাঠে অবিশ্বাস্য সময় কাটাচ্ছেন মেসি। সর্বশেষ ৩ ম্যাচেই করেছেন ৬ গোল। অথচ সেই মেসিকে কাল জাতীয় দলের জার্সিতে সেভাবেই চেনাই গেল না।

গোল করা দূরের কথা, ভেনেজুয়েলার রক্ষণে সেভাবে আতঙ্কই ছড়াতে পারেননি। ভেনেজুয়েলা জানত, আর্জেন্টিনা খেলাটা তৈরি করবে মেসিকে ঘিরে। তাই আর্জেন্টিনাকে রুখে দিতে হলে সবার আগে রুখে দিতে হবে মেসিকে।

নিজেদের সেই পরিকল্পনায় শতভাগ সফল ভেনেজুয়েলা। ৫ ডিফেন্ডার নিয়ে মাঠে নামা ভেনেজুয়েলা প্রতিপক্ষের আক্রমণ রুখে দেওয়ার পাশাপাশি প্রতি-আক্রমণে বিশেষ ক্যারিশমা দেখিয়েছে। ৩-১ গোলের জয়টি সেই প্রতি আক্রমণের ক্যারিশমারই ফসল।

ম্যাচের ৬ মিনিটেই মেসির ফেরাটাকে হতাশায় রূপ দেন রনডন। দুর্দান্ত এক গোল করে ভেনেজুয়েলাকে এগিয়ে দেন ১-০ ব্যবধানে। প্রথমার্ধে আরও একবার গোল উৎসবে মাতে ভেনেজুয়েলা। ৪৪ মিনিটে ২-০ করে ফেলেনে জন মুরিলো।

০-২ ব্যবধানে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা। ফিরে এসে ৫৯ মিনিটে অবশ্য আর্জেন্টিনাকে ম্যাচে ফিরিয়েছিলেন লতারো মার্টিনেজ। কিন্তু ৭৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ভেনেজুয়েলার পক্ষে তৃতীয় গোলটি করে আর্জেন্টাইনদের ঘুরে দাঁড়ানোর আশায় জল ঢেলে দেন জোসেফ মার্টিনেজ।

বল পজেশনে অবশ্য অনেক এগিয়ে ছিল মেসির আর্জেন্টিনা। প্রতিপক্ষের গোলমুখ লক্ষ্য করে শটও বেশি নিয়েছে আর্জেন্টিনাই। ভেনেজুয়েলার গোল পোস্ট লক্ষ্য করে ১১টি শট নিয়েছে তারা। বিপরীতে ভেনেজুয়েলা নিয়েছে ৭টি শট। আর্জেন্টিনার ১১ শটের মধ্যে মাত্র ৩টি লক্ষ্যে ছিল। তার একটিতে গোল হয়েছে। বিপরীতে ভেনেজুয়েলার ৭ শটের ৪টিই ছিল লক্ষ্যে। মানে গোলমুখে। তার ৩টিই গোলে পরিণত।

শক্তিশালী আর্জেন্টিনার বিপক্ষে দারুণ এই জয় নিশ্চিতভাবেই আসন্ন কোপা আমেরিকার আগে ভেনেজুয়েলার আত্মবিশ্বাসের পারদটা চড়িয়ে দিল। আর মেসির আর্জেন্টিনার? বড় হলো শঙ্কা!

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর