• বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৮ ১৪২৭

  • || ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

৪৬

নিজেদের গৃহদাহে পুড়ে অঙ্গার তাড়াশ উপজেলা বিএনপি

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০২০  

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে নিজেদের গৃহদাহে পুড়ে অঙ্গার উপজেলা বিএনপির অঙ্গসংগঠন। প্রকাশ্যে রুপ নিয়েছে তাড়াশ উপজেলা বিএনপির দুটি গ্রুপের দ্বন্দ। দলীয় সুত্রে জানা যায়, সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান তালুকদার ও তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীরের মধ্যে গৃহবিবাদ দীর্ঘদিন যাবত।

আর এ দ্বন্দ প্রকাশ্যে রুপ নেয় গত বছরের (১৫অক্টোবর) সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি রুমানা মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু মিলে জেলা বিএনপি তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেয়। এতে তাড়াশ উপজেলা বিএনপি আহবায়ক বেনজির আহমেদ শফি ও সদস্য সচিব প্রভাষক সাইদুর রহমান মনোনিত করে কমিটি গঠন করা হয়।

আর তখন থেকেই দুটি ভাগে বিভক্ত হওয়ার প্রকাশ্যে রুপ নেয়। পরে ওই কমিটিকে অবৈধ দাবী করে তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর এর নেত্বতে গত ১ ডিসেম্বর আরেকটি আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেয়। তখন খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনা উপেক্ষা করে তৃণমূলের মতামত না নিয়ে জেলায় বসে পকেট কমিটি গঠন করা হয়েছে। যা তৃণমূলের নেতাকর্মীরা প্রত্যাখ্যান করেছে। পরে মোঃ জয়নুল আবেদীন মাহবুবকে আহবায়ক এবং আব্দুল বারিক খন্দকারকে সদস্য সচিব করে কমিটি গঠন করে। দলীয় নেতাকর্মীরা জানান, এমনকি তারেক রহমানের জম্মদিনেও দুটিভাগে বিভক্ত হয়ে জম্মদিন পালন করা হয়েছে। যুবদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীও পালন করেছে দুই ভাগে। এছাড়া আগামী তাড়াশ উপজেলা বিএনপির কাউন্সিল কে কেন্দ্র করে তিনটি ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে দলটি।

এখানে সাবেক সাংসদ আব্দুল মান্নান তালুকদারের গ্রুপের মধ্যে আবার দুটি বিভাগে বিভক্ত হয়েছে পড়েছে। গ্রুপ দুটি হলো বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক স.ম আফসার আলী, যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান টুটুল গ্রুপ ও যুবদলের সাবেক উপদেষ্টা আব্দুল হাকিম, সাবেক ছাত্রনেতা জিয়াউর রহমান জিয়া। আরেক গ্রুপ বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর এর গ্রুপ মিলে এখন তিনটি ভাগে ভাগ হয়েছে। উপজেলা বিএনপির যুগ্ন-আহবায়ক প্রভাষক আব্দুল হাকিম জানান, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নেই শান্তিপুর্নভাবে সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। সুতরাং তাড়াশ উপজেলা বিএনপির কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমেই হবে। বিএনপির মত বৃহত্তম দলের কমিটি সিলেক্টশন হতে পারে না।

তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক স.ম আফসার আলী বলেন, জেলা বিএনপির নিদের্শনা মোতাবেক উপজেলা বিএনপির কার্যক্রম চলে। সেখানে দলের বাহিরে যদি কেউ প্রোগ্রাম করেন। সেটা করার এখতিয়ার তার নেই। জেলা বিএনপি সিদ্ধান্ত নিবেন। কমিটি নির্বাচনের মাধ্যমে হবে না কিভাবে হবে। তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন, আওয়ামীলীগের কমিটি হয় ভোটে, আর বিএনপির কমিটি হয় নোটে (টাকা)। আর একারনে বিএনপি’র ভবিষ্যৎ অন্ধকার। তাড়াশে সাবেক সাংসদ আব্দুল মান্নান তালুকদার বারবার পকেট কমিটি করার জন্য তৃণমুল বিএনপিতে গ্রুপিং চলছে। আমার চাওয়া নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি গঠন করা হোক।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর