• বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪২৭

  • || ২১ রজব ১৪৪২

গ্যাসের সমস্যা দূর করবে এই চা

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২১  

বেশির ভাগ মানুষ যখন তখন পেটে গ্যাস জমে যাওয়ার সমস্যায় ভোগেন। আর এই গ্যাস জমে গেলে পেট ভার লাগতে শুরু করে। এরপর পেটে ব্যথা, হাঁশফাঁশ অবস্থা, বমি বমি ভাব। গ্যাস দূর না হওয়া পর্যন্ত মেলে না স্বস্তি।

গ্যাসের এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ওষুধের সাহায্য নেন প্রায় সবাই। তবে সব ওষুধেরই কিছু না কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। তাই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে বেছে নিতে পারেন এই চা। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক যেসব চা খেলে অ্যাসিডিটির সমস্যা দূর হবে সে সম্পর্কে- 

আদা চা
পেটের যেকোনো সমস্যায় আদার ভূমিকা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। অনেকে কাঁচা আদাও চিবিয়ে খেয়ে থাকেন। আদা চা খাওয়ার প্রচলন আমাদের মধ্যে যথেষ্ট রয়েছে। শুধু ঠাণ্ডা-কাশিতে নয়, আদা চা গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর করার জন্যও উপকারী।

হলুদ চা
হজমসংক্রান্ত যেকোনো সমস্যায়ই হলুদ চা অত্যন্ত উপকারী। এর মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বদহজম ও পেট ফাঁপায় মুক্তি দিতে সহায়ক। হলুদ চায়ের মধ্যে এক চিমটে গোলমরিচ গুঁড়া যোগ করে নিলে আরো বেশি উপকার পাবেন।

পুদিনা চা
আমাদের পেট ঠাণ্ডা রাখতে পুদিনা পাতা বেশ সহায়ক। যেকোনো রকম হজমের সমস্যায় পুদিনা পাতা অত্যন্ত উপকারী। পুদিনা চা পেট থেকে গ্যাস বের করে দিয়ে স্বস্তি দেয়।

ক্যামোমিল চা
গ্যাস, বদহজম, ডায়েরিয়া, বমিভাবের জন্য দীর্ঘদিন ধরেই আয়ুর্বেদিক ওষুধে ক্যামোমিলের ব্যবহার রয়েছে। এই ফুলের রস পেটব্যাথা ও হজমের সমস্যায় অত্যন্ত উপকারী। চায়ের মধ্যে ক্যামোমিল মেশালে তা পেট থেকে অতিরিক্ত গ্যাস বের করে দেবে।

মৌরি চা
হজমক্ষমতা ভালো রাখতে মৌরির ব্যবহার বেশ পুরোনো। একারই অনেকে খাওয়ার পরে মৌরি চিবিয়ে খান। কারণ মৌরির মধ্যে থাকা উপাদান হজমে সহায়ক। মৌরি চা পেটে জমে থাকা গ্যাস বের করে দিতে সাহায্য করে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ