• শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭

  • || ১৫ রজব ১৪৪২

কৃষিতে আশার আলো

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২০ জানুয়ারি ২০২১  

দেশে সবজি চাষের পরিমাণ দিন দিন বাড়ছে। সবজি উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে চতুর্থ। শুধু উৎপাদন বৃদ্ধি নয়, কতটা কেমিক্যাল বা বিষমুক্ত করে উৎপাদন করা যায় তার দিকেই এখন নজর দিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়। দেশের ১০টি উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ‘আইপিএম মডেল ইউনিয়ন’ হিসেবে বিষমুক্ত সবজি চাষ শুরু হয়েছে এ বছর। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিষমুক্ত সবজির চাহিদা দেশজুড়ে। দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও এখন রফতানি হচ্ছে বাংলাদেশের বিষমুক্ত সবজি। যশোর ও বগুড়ার শিবগঞ্জ থেকে ‘আইপিএম মডেল ইউনিয়নের’ চাষকৃত বাঁধাকপি রফতানি শুরু হয়েছে। এ সবজি প্রধানত যাচ্ছে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে। আরো কয়েকটি দেশেও বিষমুক্ত এ সবজির চাহিদা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, জৈব প্রযুক্তিতে উৎপাদিত কৃষিপণ্যের দাম তুলনামূলক বেশি। অতিমাত্রায় রাসায়নিক সার ও বালাইনাশক ব্যবহারে তৈরি হচ্ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি। সমস্যা থেকে কৃষক ও পরিবেশকে বাঁচাতে দেশে প্রথমবারের মতো ১০টি উপজেলার ১০ ইউনিয়নকে মডেল হিসেবে নিয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের আইপিএম প্রকল্পের আওতায় ১০০ একর করে মোট এক হাজার একর জমিতে বিষমুক্ত নিরাপদ সবজি চাষ হচ্ছে। পরিবেশবান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্পের আওতায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর ‘আইপিএম মডেল ইউনিয়ন’ এ বিষমুক্ত সবজি চাষ করছে।

পরিবেশবান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্পের পরিচালক আহসানুল হক চৌধুরী নয়া দিগন্তকে জানান, এ বছর ১০টি উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন নির্বাচন করা হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) মো: আসাদুল্লাহ গতকাল নয়া দিগন্তকে জানান, আইপিএম মডেল ইউনিয়নের মাধ্যমে সবজি চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। কারণ অনেকেই সবজি চাষে বিষ দেয়। আমরা চেষ্টা করছি বিষ যাতে না দেয়, কম বিষ দেয়। কীটনাশক না দিয়ে যাতে তারা সবজি উৎপাদন করতে পারে এবং আমরা যাতে নিরাপদ খাদ্য পেতে পারি, সেভাবেই কৃষককে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, সবজি উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন তৃতীয়। দেশে যথেষ্ট সবজি উৎপাদন হচ্ছে।

এখন সবজির দাম নেই। কৃষক পয়সা পাচ্ছে না। যদি নিরাপদ (কেমিক্যাল মুক্ত) সবজি হতো তাহলে দেশের বাইরে রফতানি করা যেত; কৃষকও পয়সা পেত। সেজন্য আমরা মডেল ইউনিয়ন ধরে বিষমুক্ত নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে গুরুত্ব দিয়েছি। প্রকল্পভুক্ত ১০টি ‘আইপিএম মডেল ইউনিয়ন’ হচ্ছেÑ যশোর সদর উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়ন, ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার রামপুর ইউনিয়ন, কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ, শেরপুরের লালিতা বাড়ি উপজেলার রামচন্দ্র কুড়া, টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি উপজেলার মুশুদ্দি ইউনিয়ন, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলিয়া ইউনিয়ন, দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার সাতোর ইউনিয়ন, পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার লক্ষ্মী কুণ্ডা ইউনিয়ন, ঢাকার ধামরাই উপজেলার ছানুরা ইউনিয়ন এবং রাজশাহীর পবা উপজেলার পারিলা ইউনিয়ন।

যশোর ও বগুড়ার শিবগঞ্জের বাঁধাকপি যাচ্ছে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরে : ‘আইপিএম মডেল ইউনিয়ন’র মধ্যে যশোর সদর উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়নও রয়েছে। স্থানীয় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাজ্জাদুর রহমান নয়া দিগন্তকে বলেন, গত ৫ জানুয়ারি থেকে গত সোমবার পর্যন্ত প্রায় ১২০ মে. টন বাঁধাকপি মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে রফতানি হয়েছে। মোট ৫০০ টনের চাহিদা রয়েছে আমাদের কাছে। আমাদের দেশে যেমন বিষমুক্ত সবজির চাহিদা বেশি, তেমনি বিদেশেও যারা নিচ্ছেন তারা বিষমুক্ত সবজিই চাচ্ছেন। সলিডারিডাড নেটওয়ার্ক ও জাগরণী ফাউন্ডেশন নামের দু’টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বাঁধাকপি রফতানি হচ্ছে। মডেল ইউনিয়ন থেকে ৬১ মে. টন বাঁধাকপি দেয়া সম্ভব হয়েছে। বাকিটা উপজেলার অন্য এলাকা থেকে দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয় বাজারে যেখানে একটি দেড় কেজি ওজনের বাঁধাকপির দাম পাইকারিভাবে ৫-৭ টাকা করে বিক্রি করে থাকেন কৃষক, সেখানে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরের বায়ারদের কাছে প্রতি পিস ৯ টাকা করে পাচ্ছেন কৃষক। এক বিঘা জমিতে বাঁধাকপি উৎপাদনে খরচ পড়ে ১৫-২০ হাজার টাকা। আর সবজি বিক্রি হয় ৫৪ হাজার থেকে ৬৫ হাজার টাকা।

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: মুজাহিদ সরকার জানান, উপজেলার আইপিএম মডেল দেউলিয়া ইউনিয়নসহ উপজেলায় রবি মওসুমে মোট এক হাজার ৮৫০ হেক্টর জমিতে সবজি চাষ হয়েছে। এর বাইরে প্রায় সাড়ে ১৮ হাজার হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছে। শিবগঞ্জ থেকে সিঙ্গাপুর-মালয়েশিয়ায় বাঁধাকপি রফতানি হচ্ছে। এ পর্যন্ত ৬৫৫ টন কপি রফতানি হয়েছে। তাদের মোট চাহিদা ২ হাজার টন। এ ছাড়া ৪০০ টন মিষ্টি কুমড়ার চাহিদা রয়েছে। মডেল ইউনিয়নের বিষমুক্ত মিষ্টি কুমড়াও রফতানি করা হবে বলে জানান তিনি।

শেরপুরের নালিতা বাড়ি উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা ওয়াসিফুর রহমান বলেন, উপজেলায় মোট ৯৪৩ হেক্টর জমিতে চলতি রবি মওসুমে সবজি চাষ হয়েছে। উপজেলায় বিষমুক্ত সবজির আলাদা স্টল দিয়ে বিক্রি হচ্ছে। কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: সারোয়ার জামান জানান, উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নে আইপিএম মডেল সবজিচাষ হচ্ছে। রাজশাহীর পবা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন সুলতানা জানান, উপজেলার পারিলা ইউনিয়নে মডেল হিসেবে এক শ’ একর জমিতে জৈব সার দিয়ে সবজি চাষ হয়েছে। পাবনার ঈশ^রদী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: আব্দুল লতিফ জানান, উপজেলার লক্ষ্মী কুণ্ডা ইউনিয়নে মডেল হিসেবে সবজি চাষ হচ্ছে। কৃষকরা বিষমুক্ত সবজি চাষে দিন দিন আগ্রহী হয়ে উঠছে। উপজেলায় মোট ১২ শ’ হেক্টর জমিতে সবজি চাষ হয়েছে।

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শোয়েব আহম্মেদ জানান, আইপিএম পদ্ধতির সবজি আবাদে ত্রিশালের রামপুর ইউনিয়নে কীটনাশকের পরিবর্তে সমন্বিত বালাইনাশক পদ্ধতিতে ফসল উৎপাদনে কৃষকদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ২৫ জন করে ২০টি গ্রুপ করা হয়েছে। আর প্রতিটি গ্রুপকে পাঁচ একর জমিতে বিষমুক্ত নিরাপদ সবজি চাষে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের (টাঙ্গাইল) উপপরিচালক আহসানুল বাশার নয়া দিগন্তকে বলেন, ধনবাড়ী উপজেলার মুশুদ্দি ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে সবজি চাষ হচ্ছে। সেখানে কীটনাশকের পরিবর্তে সেক্স ফেরোমোন ফাঁদ, হলুদ আঠালো ফাঁদ ব্যবহার করা হচ্ছে।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ