• শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

৩৫১

এবার নারী সুরক্ষায় এলো বিশেষ জ্যাকেট

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৮  

যৌন হামলা থেকে নারীদের রক্ষা করতে মেক্সিকোর চার শিক্ষার্থী মিলে একটি জ্যাকেট তৈরি করেছেন। বলা হচ্ছে, এই জ্যাকেট পরিহিত অবস্থায় থাকলে কেউ যখন তার ওপর হামলা চালাতে আসবে তখন জ্যাকেটের হাতা থেকে হামলাকারীর গায়ে বৈদ্যুতিক শক লাগবে। শিক্ষার্থীরা বলছেন, তারা যে শহরে আছেন, সেখানে ধর্ষণের মতো যৌন হামলার ঘটনা বেড়ে যাওয়ার কারণে এরকম একটি জ্যাকেট তৈরি করতে উৎসাহী হয়েছেন।


তারা বলছেন, এই বৈদ্যুতিক শকের তীব্রতা এতটাই কম যে এর ফলে জ্যাকেটটিকে কোনও ধরনের অস্ত্র হিসেবে গণ্য করা যাবে না। তবে এর মাধ্যমে যে কোনও ধরনের যৌন হামলা ঠেকানো সম্ভব হবে। পরীক্ষামূলকভাবে তৈরি এই জ্যাকেটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ওমেন ওয়্যারেবল’। প্রযুক্তি, আইন ও রোবোটিক্স বিভাগের চারজন নারী শিক্ষার্থী মিলে এই জ্যাকেটটি তৈরি করেছেন। এরা প্রত্যেকেই পুয়েবলা শহরে মন্টেরি ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি অ্যান্ড হায়ার এডুকেশনে পড়াশোনা করেন। নতুন নতুন পণ্যর বাণিজ্য নিয়ে ক্লাসে পরীক্ষামূলক কাজের অংশ হিসেবেই তারা এটি উদ্ভাবন করেছেন।
ওই শিক্ষার্থীদের একজন হলেন পারা কুইরোজ। তিনি জানান, আমাদের অনেক বান্ধবী ও পরিচিতদের কাছে শুনেছি যে তাদের ওপর নানা ধরনের যৌন হামলা চালানো হয়েছে। এই ধরনের সহিংসতার ওপর কিছু গবেষণার পর আমরা এই জ্যাকেটের ধারণাটির নিয়ে এসেছি। সরকারি পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে। পুয়েবলা শহরে প্রতিদিন প্রায় তিনটি করে যৌন হামলার ঘটনা ঘটছে।


শিক্ষার্থীরা প্রথমে সুতোর তৈরি একটি ট্র্যাক স্যুট কিনে আনেন। তারপর তার লাইনিংয়ের ভেতরে ৯ ভোল্টের একটি ব্যাটারি, একটি ট্রান্সফর্মার এবং কিছু তার জুড়ে একটি সার্কিট তৈরি করে দেন। এগুলো এমনভাবে জড়ানো থাকে যে যিনি এটি পরবেন তার শরীরের কোথাও বৈদ্যুতিক শক লাগবে না। বিদ্যুৎ চালু ও বন্ধ করার জন্য সেখানে একটি সুইচ লাগানো আছে। সঙ্গে আছে একটি এলইডি বাতিও।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর