• বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৬ ১৪২৭

  • || ১৩ সফর ১৪৪২

৩২

উল্লাপাড়ায় ভয়কে জয় করে করোনা যোদ্ধায় ডাঃ আলামিন

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২০  

মৃত্যুর ভয় নেই,নেই নাওয়া-খাওয়া ঘুম কিংবা বিশ্রাম। উল্লাপাড়ায় কোভিড-১৯ প্রাণঘাতি নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্তে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাত-দিন একাকার করে উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে স্যাম্পল কালেকশনে (নমুনা সংগ্রহ)অবিরাম ছুঁটে চলছেন।

উপজেলার যেখানেই রোগীর করোনা উপসর্গের খবর জানছেন সেখানেই তারা নমুনা সংগ্রহে ছুঁটে যাচ্ছেন। নমুনা সংগ্রহ করতে গিয়ে প্রাণঘাতি করোনা রোগে তারাও আক্রান্ত হতে পারেন যা ছড়িয়ে পড়তে পারে তাদের পরিবারেও এ ভয়কে পরোয়া না করে উল্লাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) করোনা ফোকাল পারসন ডাঃ আলামিন হোসেনের নেতৃত্বে দেশ ও মানুষের কল্যাণে ছুঁটে চলা মানবপ্রেমী এ করোনা যোদ্ধারা হলেন, এমটি ল্যাব প্রদীপ কুমার সরকার,এমটি ইপিআই জিল্লুর রহমান,হেলথ ইন্সপেক্টর (ইনচার্জ)
আলহাজ্ব আবু তাহের ফারুকী।

হেলথ সেক্টরের প্রতিটি চিকিৎসক, নার্স,ওয়ার্ড বয়,ফিল্ড স্টাফ এর করোনা যোদ্ধােদের অবদান থাকলেও এদের নেতৃত্বে আছেন ডাঃআলামিন। তিনি মার্চ মাস থেকে মেডিকেল অফিসার(রোগ নিয়ন্ত্রণ) এবং করোনা ফোকাল পারসন হিসেব নির্ভীক ভাবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সমগ্র উল্লাপাড়ায় দিনরাত ২৪ ঘন্টা নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন।

উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মোঃ আরিফুজ্জামান,উল্লাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন,উল্লাপাড়া মডেল থানা ও সলঙ্গা থানার ওসি এবং সর্বস্তরের জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ জনগণের সাথে সার্বক্ষণিক সমন্বয় সাধন করে হোম কোয়ারান্টাইন, লক ডাউন,করোনা আক্রান্ত রোগীকে চিকিৎসা প্রদান,ফলো আপ,সন্দেহভাজন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা,এমনকি মোবাইল ফোন ও মেসেজের মাধ্যমেও চিকিৎসা সেবা প্রত্যাশী মানুষকে সেবা প্রদান করছেন।

দিনে ও রাতে অসংখ্য বার তার ফোনে করোনা আক্রান্ত রোগী, তার আত্মীয় সহ,চেনা অচেনা মানুষের ফোন ও মেসেজ আসে।তিনি ধৈর্য্য হারা না হয়ে মানুষের সমস্যা শোনেন এবং তাদেরকে সহযোগিতার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেন,কখনো উপজেলা প্রশাসন, কখনো উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা কখনো পুলিশ সদস্যবৃন্দ কখনো জনপ্রতিনিধিদের কাছে তাদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন,সহযোগিতার জন্য অনুরোধ করেন।

এছাড়া উপজেলা প্রশাসন,বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাথে সমন্বয় সাধন করে তিনি কর্মহীন,হতদরিদ্র এলাকাবাসীর মধ্যে খাদ্য উপহার দেবার ব্যবস্হা করেছেন।ব্যক্তিগত উদ্যোগেও তিনি স্বল্প পরিসরে আর্থিক সহযোগিতা ও ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন।

এছাড়া করোনাযোদ্ধা সংবাদমাধ্যম কর্মীদের সাথে বন্ধুত্বসুলভ আচরণ করে তিনি তথ্য প্রদান করেন। উল্লেখ্য অন্যান্য চিকিৎসদের মত হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করার পাশাপাশি নিজ জন্মস্হান উল্লাপাড়ার মাটি ও মানুষের জন্য এক নিবেদিতপ্রাণ অকুতোভয় করোনা যোদ্ধা ডাঃ আলামিন।

এক কথায় করোনা মহামারী মোকাবেলায় তিনি একজন অন্যতম সম্মুখযোদ্ধা। কোন ধরনের ব্যক্তিস্বার্থের উর্ধ্বে এসে নিজের জীবনের ঝুকি নিয়ে পেশাগত দায়িত্বের গন্ডি ছাড়িয়ে মানবতাবোধ তবং অসহায় মানুষের পিছনে দাড়ানোর এ প্রত্যয়কে আমরা সাধুবাদ জানাই।

এ প্রসঙ্গে করোনা যোদ্ধা ডাঃ আলামিন বলেন,দেশ ও জাতির এ মহা দূর্যোগ মুহূর্তে ‘মানবসেবায়’ ভূমিকা রাখতে পেরে আমরা গর্বিত। ‘মানুষ মানুষের জন্য’ মানবসেবার এ মহান ব্রতি নিয়ে দেশ থেকে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস সম্পূর্ণ নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ যুদ্ধ অব্যাহত থাকবে। দেশ ও জাতির জন্য যদি আমাদের মৃত্যুকে আলিঙ্গনও করতে হয় তবু কোন দুঃখ নেই।

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর