• মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

৪৫৯

আর্সেনাল ফুটবলারদের নেশা গ্রহণের ছবি ফাঁস

আলোকিত সিরাজগঞ্জ

প্রকাশিত: ৮ ডিসেম্বর ২০১৮  

চলতি বছরের আগস্টের ঘটনা। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের (ইপিএল) নতুন মৌসুম শুরুর কিছুদিন আগে লন্ডনে এক পার্টিতে গিয়েছিলেন আর্সেনালের কজন তারকা খেলোয়াড় - মেসুত ওজিল, পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াং, আলেক্সান্ডার লাকাজেতে, মাতেও গুয়েনদোউজিরা। সেখানেই আর্সেনালের ডজন খানেক খেলোয়াড় মদ-বিয়ার পান করেন। শুধু তাই নয়, ওজিল-লাকাজেতে-অবামেয়াংদের মতো তারকা ফুটবলাররা সে রাতে বেলুনের মাধ্যমে মাদকও গ্রহণ করেছিলেন!

বেলুনের মাধ্যমে মাদক - পশ্চিমা বিশ্বে যা ‘হিপ্পি ক্র্যাক’ নামে পরিচিত। আর্সেনালের জার্মান ফুটবলার ওজিলকে দেখা যায় একটি বেলুনের মাধ্যমে মাদক গ্রহণ করছেন মুখ দিয়ে। ওই মাদকের প্রতিক্রিয়ায় চোখ উল্টিয়ে প্রায় অচেতন হয়ে পড়েন তিনি। তার সতীর্থ লাকাজেতের অবস্থা ছিল আরও খারাপ। বেলুনে মুখ লাগিয়ে গভীর শ্বাস নিচ্ছিলেন তিনি। তার অসংলগ্ন চাহনি ও আচরণে বোঝা গেছে, আশপাশে কী ঘটছে তা নিয়ে লাকাজেতের কোনো ধারণাই ছিল না!

একসঙ্গে বসে মাদক গ্রহণ করছেন আর্সেনাল তাড়কারা। ছবি: দ্য সান

আর্সেনালের ১৯ বছর বয়সী ফরাসি মিডফিল্ডার মাত্তেও গুয়েনদোউজিতো বেলুনের মাধ্যমে এই মাদক নেওয়ার পর পুরোপুরি অচেতনই হয়ে পড়েন। একই ভাবে বেলুন দিয়ে মাদক গ্রহণ করছিলেন অবামেয়াং-কোলাসিনাচরাও। এমনই এক বিস্ফোরক ভিডিও প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড 'দ্যা সান' ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটির ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সোফায় বসে সবাই মিলে শরীর এলিয়ে দিয়ে তারা বেলুন দিয়ে এমন নেশা করছিলেন আর্সেনালের এই তারকা ফুটবলাররা।

ওজিলকে দেখা যাচ্ছে, একটি বেলুনের মাধ্যমে মাদক গ্রহণ করছেন মুখ দিয়ে। ছবি: দ্য সান

সানের দাবি, বেলুনের মধ্যে ছিল নাইট্রাস অক্সাইড গ্যাস। যুক্তরাজ্যে এই মাদক ‘স্ট্রিট ড্রাগ’ বা ‘লাফিং গ্যাস মাদক’ নামে পরিচিত। প্লাস্টিক ব্যাগে অ্যালকোহলের সঙ্গে এই গ্যাস নেওয়া হয়। হ্যালুসিনেশন বা চোখে ভুল দেখা, ঝিমুনি ভাব আসে। এই মাদক গ্রহণে শরীরের পেশি নড়াচড়ায় সমস্যা, হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। আর বেশি মাত্রায় গ্রহণ করলে মস্তিষ্কে অক্সিজেনের সরবরাহ কমে গিয়ে মৃত্যুও পর্যন্ত হতে পারে।

১৯ বছর বয়সী ফরাসি মিডফিল্ডার মাত্তেও গুয়েনদোউজি অজ্ঞান হয়ে পড়ে রয়েছেন। ছবি: দ্য সান 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটি আরও জানাচ্ছে, লন্ডনের ওয়েস্ট এন্ড অঞ্চলে ব্যক্তিগত উদ্যোগে আয়োজন করা হয়েছিল এই পার্টি। মদ্যপান থেকে শুরু করে অন্যান্য নেশা গ্রহণের এই পার্টিতে উপস্থিত ছিল ৭০জন তরুণীও। এই পার্টিতে আর্সেনাল প্রায় ৩০ হাজার পাউন্ড খরচ করেছেন। অবশ্য সেখানে উপস্থিত আর্সেনাল তারকাদের মাঝে কম-বেশি সবাই নেশা করলেও কেবল মাত্র হেনরিখ মাখিতারিয়ান ও সকোদ্রান মুস্তাফিকে বেলুনের মাধ্যমে গ্যাস নিতে দেখা যায়নি।

বেলুনের মাধ্যমে ওই মাদক গ্রহণ করেছেন ৭-৮ জন আর্সেনাল তারকা। ছবি: সংগৃহীত

দ্য সানের এমন ভিডিও প্রকাশের পর তুমুল শোরগোল পড়ে গেছে ফুটবল বিশ্বে। আর পড়বেই বা না কেন? ওজিলের মতো তারকা ফুটবলারদের বেশ শৃঙ্খলাপরায়ণ ফুটবলার হিসেবেই চেনে ফুটবল বিশ্ব। কিন্তু ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডের ওই ভিডিও ফাঁসের পর সেই ধারণাই তো বদলে যাচ্ছে গানারদের ভক্ত-সমর্থকদের।

ওজিলদের এই বেলুন দিয়ে মাদক গ্রহণ নিয়ে আর্সেনালের পক্ষ থেকে অবশ্য এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো প্রতিক্রিয়া আসেনি। তবে চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ২০ ম্যাচ অপরাজিত এই ক্লাবটির এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘খেলোয়াড়দের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলা হবে এবং তারা যে ক্লাবের প্রতিনিধি এবং দায়-দায়িত্ব সমন্ধে তাদের মনে করিয়ে দেওয়া হবে।’

সূত্র: দ্যা সান

আলোকিত সিরাজগঞ্জ
আলোকিত সিরাজগঞ্জ
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর